প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

ফিফটি করে মুশফিকের বিদায়

   
প্রকাশিত: ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

চট্টগ্রাম টেস্টে লজ্জার হারের পর ঢাকা টেস্টে সুবিধাজনক অবস্থায় নেই বাংলাদেশ। নিজেদের প্রথম ইনিংসে শুরুতেই হোঁচট খায় স্বাগতিকরা। ৪ উইকেটে ১০৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করা বাংলাদেশ ফলোঅন এড়াতে লড়ছে এখন। তৃতীয় দিনে এই টাইগারদের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৪২ রান। প্রতিপক্ষের চেয়ে এখনো ২৬৭ রান পিছিয়ে বাংলাদেশ

একটা প্রান্ত আগলে ছিলেন মুশফিকরে রহিম। দল ও সমর্থকদের তার ওপর আশাও ছিল অনেক বেশি। বেশ ভালো খেললেন, ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরিও তুলে নিলেন। তারপরই কি দায়িত্ব শেষ মনে করলেন মুশফিকুর রহীম?

বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের দায়সারা মনোভাবের প্রতিফলন দেখা গেল আজ (শনিবার) মুশফিকের মধ্যেও। ক্যারিয়ারের ২২তম হাফসেঞ্চুরির কিছু পরই অপরিনামদর্শী শট খেলতে গেলেন। অযথা রিভার্স সুইপ করে হারালেন উইকেট।

মুশফিককে ফাঁদে ফেলতেই একটু আলগা ডেলিভারি দিয়েছিলেন রাহকিম কর্নওয়াল। বিপদ না বুঝেই রিভার্স সুইপ করলেন দেশসেরা ব্যাটসম্যান। শর্ট কভারে হলেন মায়ার্সের ক্যাচ। ১০৫ বলে ৭ বাউন্ডারিতে সাজানো মুশফিকের ৫৪ রানের ইনিংসের পরিসমাপ্তি তাতেই।

এর আগে ক্যারিবীয়দের পাতা ফাঁদে পা দিয়েছেন মোহাম্মদ মিঠুনও। আগের দিন দলের বিপদ দেখে একদম নিজেকে খোলসবন্দী করে ফেলেছিলেন। রান তোলার চেয়ে উইকেটে সময় কাটানোকেই সঠিক সিদ্ধান্ত মনে করেছিলেন মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যান। তার ধীরগতির ব্যাটিং বিরক্তি তৈরি করলেও উইকেট হারিয়ে শেষ বিকেলে আর বিপদে পড়েনি টাইগাররা।

৬১ বলে ব্যক্তিগত ৬ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করেন মিঠুন। মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে তৃতীয় দিনের সকালটাও বেশ দেখেশুনে শুরু করেছিলেন মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যান। কিন্তু অতি রক্ষণাত্মক কৌশল আর খুব বেশি কাজে আসেনি।

দিনের প্রথম ঘন্টাতেই উইকেট দিয়ে এসেছেন মিঠুন। ৮৬ বলে মাত্র ২ বাউন্ডারিতে ১৫ রান করে রাহকিম কর্নওয়ালের শিকার হয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। মিসটাইমিংয়ে ঠিকমতো শট খেলতে না পারায় শর্ট মিডউইকেটে পাতা ফাঁদে ধরা পড়েছেন তিনি।

মিঠুনের আউটে ভেঙেছে পঞ্চম উইকেটে ৭১ রানের জুটিটি। তার আগেই অবশ্য ক্যারিয়ারের ২২তম ফিফটি তুলে নেন মুশফিক। বিপদ কাটানোর আভাস তার ব্যাটে দেখা গেলেও ভুল করেছেন হাফসেঞ্চুরি পূরণ করার কিছু সময় পরই।

 

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: