>
   

খালি পেটে থাকলে যে সমস্যা হতে পারে

   
প্রকাশিত: ৮:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ৬ মার্চ ২০২১

খালি পেটে থাকলে যে সমস্যা হতে পারে

নিশ্চয়ই দেরী করে ঘুম থেকে উঠেন? বেরেকফাস্ট থেকে শুরু করে প্রতি বেলায় অনিয়ম। ব্যস্ত জীবনেযাত্রায় খাওয়াটা বেমালুম ভুলে বসে থাকেন। কিন্তু এভাবে আর কতো দিন? খালি পেট রোগের আটুর ঘর।

সময় মতো খাবার খাওয়া শরীরকে ঠিক রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু সময় মতো খাবার না খেলে নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়াও, দীর্ঘ সময় খালি পেটে থাকলে শরীরে মেদও বাড়ে। এ কারণে চিকিৎসকরা সঠিক সময়ে খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। অনেক সময় খালি পেটে থেকে কাজ করা হয়। যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

১. খালি পেটে ঘুমানো: খাবার খাওয়ার ২ থেকে ৩ ঘণ্টা পর ঘুমাতে যেতেই পারেন। তবে কখনও খালি পেটে ঘুমানো যাবে না। বরং শুতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস দুধ খেতে পারেন। পেট খালি থাকলে আমাদের শরীরে গ্লুকোজের পরিমাণ কমে যায়। যার কারণে ঘুমের সমস্যা হয়।

২. কফি: সকালে ঘুম থেকে উঠে কফি খাওয়ার অভ্যাস অনেকের থাকে। কিন্তু খালি পেটে কফি পান করা একেবারেই উচিত নয়। এর ফলে বুক জ্বালা, গ্যাস ও হজমের সমস্যা হতে পারে।

৩. শরীরচর্চা: খালি পেটে শরীরচর্চা করা খারাপ। অনেকেই মনে করে থাকেন খালি পেটে ব্যায়াম করলে শরীর থেকে বেশি ক্যালোরি ঝরবে কিন্তু এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। বরং খালি পেটে এনার্জি কম থাকে এবং শরীরচর্চাও ঠিকভাবে করা যায় না।

৪. অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি মেডিসিন: খালি পেটে কখনও পেইন কিলার খাওয়া ঠিক নয়। অন্তত বিস্কুট বা মুড়ি খেয়ে এই ওষুধ খেতে হবে। অ্যাসপিরিন, প্যারাসিটামল কিংবা অন্য কোনও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি জাতীয় ওষুধ খালি পেটে খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক!

৫. চ্যুইংগাম: খালি পেটে চ্যুইংগাম খাওয়া শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এর ফলে পেটে প্রদাহ হতে পারে। এর থেকে ডাইজেস্টিভ অ্যাসিড তৈরি হয় এবং খালি পেটে এটি খেলে গ্যাস্ট্রিকের সম্ভাবনা বাড়ে।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: