প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

মো. ইলিয়াস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শিখে নাই, সত্য কথা বলতে শিখেছে’

   
প্রকাশিত: ৪:৪২ অপরাহ্ণ, ১৮ এপ্রিল ২০২১

ছবি: প্রতিনিধি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, একটা পত্রিকায় লিখেছে মির্জা আব্বাসের ইউটার্ন। মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শিখে নাই, সত্য কথা বলতে শিখেছে। আমরা কখনোই ইউটার্ন নেই না, বাস্তবটা বলি। এখন আপনারা যদি সেই বাস্তবটাকে প্যাচিয়ে তুলে ধরেন তাহলে আমার তো কিছু করার নেই।
তিনি বলেন, সরকার বা আওয়ামী লীগ ইলিয়াস আলীকে গুম করে নাই। একথা আমি বলি নি, আমার কথাকে বিক্রিত করে লেখা হয়েছে। বিএনপি নেতারাই ইলিয়াস আলীকে গুম করেছে এ কথাটা কি আমার পক্ষে বলা সম্ভব। যে নিজের মাথায় নিজে বোম ফাটানো। এটা সম্ভব নয়। রবিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর শাহজাহানপুর তার নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেন, আমি একটা কথা পরিষ্কার করে বলতে চাই। আমার সহজ সরল মনের সরল উক্তিগুলোকে বিক্রিত করে বক্তব্যের একটা লাইন কোড করে, যার যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু লাগিয়ে দেয়া হয়েছে।\

তিনি বলেন, আজকে সকালে ইলিয়াস আলীর বাসায় একদল সাংবাদিক গিয়ে তার স্ত্রীকে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন করে হেনস্তা করার চেষ্টা করা হয়েছে। এটাইবা কেন? কি এমন ঘটনা ঘটেছে যে এই বিষয়টা নিয়ে এতো মাথা ঘামাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমি এমন কোন কথা বলিনি যার জন্য জাতির কাছে, দেশের কাছে, বিএনপি কাছে কিংবা নেতাকর্মীদের কাছে আমাকে বিব্রত হতে হবে। আমার বক্তব্য যারা শুনেছে তারা হয়তো বুঝে ওঠতে পারেনি।

মির্জা আব্বাস বলেন, আমরা বরাবরই বলে আসছি সাংবাদিকদের স্বাধীনতা নেই। মালিকদের স্বাধীনতা আছে, পত্রপত্রিকার স্বাধীনতা আছে। বিএনপির বিরুদ্ধে যত কিছু হোক লেখতে পারবে। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে একটি কথাও বলা যাবে না, লেখাও যাবে না। গণতন্ত্র এমন যায়গায় গিয়ে ঠেকেছে। জিয়াউর রহমান এমন স্বাধীনতা দেন নাই। উনি দিয়ে ছিলেন এমন স্বাধীনতা যেখানে সবাই লেখতে পারতো, বলতে পারতো। এমন কি বিএনপির শেষ সময় পর্যন্ত সংবাদ পত্রের পরিপূর্ণ স্বাধীনতা ছিলো।

কাওসার/শিই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: