প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

তামিমকে পেছনে ফেলে ফের শীর্ষে মুশফিক

   
প্রকাশিত: ৫:০০ অপরাহ্ণ, ২৩ এপ্রিল ২০২১

টেস্ট ক্রিকেটের ইতহাসে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় মুশফিকুর রহিমকে পেছনে ফেলে চলতি সিরিজেই শীর্ষস্থানে উঠেছিল টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। তবে তাকে প্রথমস্থানে বেশিদিন থাকতে দিলেন না বাংলাদেশের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। তামিমকে টপকে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করেছেন মুশফিক।

শ্রীলংকায় ক্যান্ডির পাল্লেকেলে স্বাগতিকদের বিপক্ষে লড়াইয়ে ব্যস্ত বাংলাদেশ। এরইমধ্যে অভ্যন্তরীণ লড়াইও চলছে জাতীয় দলের দুই পঞ্চপাণ্ডব তামিম ও মুশফিকের মধ্যে। তা হয়তো অনেকের অলক্ষ্যেই ঘটছে। রানের সংখ্যায় একজন্য অন্যকে ছাপিয়ে যাচ্ছেন।

প্রথম দিন ৯০ রানের ইনিংস খেলে মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন বাঁহাতি ওপেনার তামিম।

চলতি টেস্ট শুরুর আগে বাংলাদেশের পক্ষে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন মুশফিক। তার রান ছিল ৪৫৩৭। ৪৫০৮ রান নিয়ে মুশফিকের ঠিক পেছনেই ছিলেন তামিম। মুশফিককে ছুঁতে ৩০ রান দরকার ছিল তামিমের।

বুধবার ম্যাচের প্রথম দিন তামিম খেললেন ৯০ রানের ইনিংস। অর্থাৎ মুশফিককে ছাড়িয়ে আরো ৬০ রান এগিয়ে যান তামিম।

তবে বেশিক্ষণ এগিয়ে থাকা হয়নি তামিমের। একদিন পরে আজ শুক্রবার ধীর গতিকে ১৫৭ বলে অপরাজিত ৬৮ রান করেন মুশফিক। যা তার শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করে।

বৃহস্পতিবারই রেকর্ড পুনরুদ্ধার করতে পারতেন মুশফিক। কিন্তু আলোকস্বল্পতার কারণে এক ঘণ্টা আগেই বন্ধ হয়ে যায় খেলা। ২৫ ওভার না খেলেই দ্বিতীয় দিন শেষ করতে হয়।

আজ সকালে ক্যারিয়ারের ২৩তম ফিফটির পাশাপাশি তামিমের রেকর্ডটি ছিনিয়ে নেন মুশফিক।

৬২তম রান নিয়ে তামিমকে ফের দুই ঠেলে দেন মি. ডিপেন্ডেবল। মুশফিক (৪৬০৫) ও তামিমের (৪৫৯৮) পর টেস্টে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় রয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান (৩৯৩০),বাংলাদেশ দলের বর্তমান অধিনায়ক মুমিনুল হক (৩১৭৫) ও সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার (৩০২৬)।

তবে সেঞ্চুরি ও গড়ের দিকে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে মুমিনুল হক। বৃহস্পতিবারেরটিসহ মুমিনুলের সেঞ্চুরির সংখ্যা ১১টি। এরপর যথাক্রমে তামিম ৯টি, মুশফিক ৭টি, সাকিব ৫টি এবং বাশার ৩টি।

ইলিয়াস/এসক

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: