প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কামরুজ্জামান সেলিম

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

ঘুম ভেঙে দেওয়ায় ফুটন্ত ভাতের পাতিল ভাতিজার মাথায় ঢাললেন চাচা

   
প্রকাশিত: ৭:৫২ অপরাহ্ণ, ২৩ এপ্রিল ২০২১

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় পূর্ব-বিরোধের জের রাব্বি (০৬) নামের শিশুর মাথায় ফুটন্ত গরম ভাত ঢেলে দিয়েছেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে শিশুটির ঘাড়, কানসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়।

গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) সকালে উপজেলার ভাংবাড়িয়া গ্রামের মোল্লাপাটা এলাকায় এ নির্মম ঘটনা ঘটে। এ-ঘটনায় চাচা আব্দুর রশিদকে গ্রেফতার করেছে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ। আহত শিশু রাব্বি একই এলাকার লালু মিয়ার ছেলে।

রাব্বির মা রোমানা খাতুন বলেন, আমার স্বামী ছয় বছর ধরে মালয়েশিয়ায় আছেন। রাব্বির চাচার সঙ্গে পারিবারিক ছোটখাটো বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার সকালে রাব্বি বাড়িতে খেলছিল। এ সময় পাশের একটি কক্ষে রাব্বির চাচা ঘুমাচ্ছিলেন। রাব্বির চিৎকারে তার ঘুম ভেঙে যায়। সঙ্গে সঙ্গে চুলার ওপর থেকে ফুটন্ত ভাতের পাতিল নিয়ে এসে রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে তার শরীর ঝলসে যায়।

এদিকে ঘটনার পর রাব্বিকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন পরিবারের সদস্যরা।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন বলেন, শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, আজ শুক্রবার আহত শিশুর মা রোমানা খাতুন চাচা আঃ রশিদের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে চাচা আব্দুর রশিদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নাঈম/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: