এ আর রাশেদ

ইবি প্রতিনিধি

সাইবার বুলিংরোধে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

   
প্রকাশিত: ৭:৪৪ অপরাহ্ণ, ২০ জুন ২০২১

ছবি: প্রতিনিধি

প্রায় দেড়মাস আগে সাইবার বুলিং বা হয়রানির শিকার হয়েছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। এ ঘটনায় একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ওই ছাত্রী। পরে স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে ওই ছাত্রীকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধামকি দেন অভিযুক্ত ফারুক হোসেন। পাশাপাশি স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলার জন্যও নানাভাবে চাপ দিতে থাকেন তিনি। এ ঘটনার পর ওই ছাত্রী নিরাপত্তা চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহঙ্গীর হোসেন বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ দেওয়ার পর দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কোন কার্যকারী ব্যবস্থা না নেওয়ায় রোববার (২০ জুন) এর প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা। দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষর্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

এসময় অভিযোগকারী ছাত্রীসহ শিক্ষার্থীরা ফারুকের শাস্তি দাবি করেন। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা প্রশাসনের কাছে নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে কার্যকরী পদক্ষেপ, সাইবার বুলিং রোধে সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণসহ ক্যাম্পাসের যৌন নির্যাতন সেলের কার্যকরিতা নিশ্চিতকরণের জোর দাবি জানান।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, এর আগেও অনেক মেয়েকে উত্যক্ত করেছে ফারুক। সর্বশেষ প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এক ছাত্রীকে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান ও যৌননির্যাতন করেছে সে। অভিযোগ দেয়ার পরও প্রশাসন কার্যত পদক্ষেপ না নেওয়ায় সে বীরদর্পে অনলাইনে ঔদ্ধত্তপূর্ণ এ ধরণের আচরণ করেই যাচ্ছে। যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য হুমকি স্বরুপ। অতি দ্রুত তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে আমরা ইউজিসি ও শিক্ষামন্ত্রী বরাবর অভিযোগ দিতে বাধ্য হবো।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: