প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

পোষাক কারখানা খোলার ঘোষণায় ঢাকামুখী মানুষের ঢল

   
প্রকাশিত: ৫:৫০ অপরাহ্ণ, ৩১ জুলাই ২০২১

ছবি: প্রতিনিধি

করোনাকে উপেক্ষা করে সরকার ষোষিত কঠোর বিধিনিষেধ অমান্য ও লকডাউ‌নের ম‌ধ্য হঠাৎ পোশাক কারখানা খোলার ঘোষণায় ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক ও আঞ্চ‌লিক বঙ্গবন্ধু সেতু- ভূঞাপুর ও এলেঙ্গা সড়কের বাসস্ট্যান্ড গু‌লো‌তে কর্মজী‌বী নারী-পুরুষের উপ‌চে পড়া ভিড় দেখা গেছে। যে যেভাবে পারছেন সেভাবে গন্ত‌ব্যে ফিরছেন। শ‌নিবার (৩১ জুলাই) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু‌ মহাসড়‌কের বি‌ভিন্ন প‌য়ে‌ন্টে কর্মস্থ‌লে ফেরা মানুষ‌দের ভিড় দেখা গে‌ছে। ত‌বে ভো‌রের দি‌কে অ‌নেক বাস ঢাকার উ‌দ্দেশে ছে‌ড়ে গে‌ছে।

আঞ্চলিক সড়কের ভূঞাপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দে‌খা গে‌ছে, যাত্রীবা‌হী বা‌সে গাজীপু‌রের চন্দ্রা পর্যন্ত ভাড়া নেওয়া হ‌চ্ছে জনপ্রতি ৪০০-৫০০ টাকা। ৬-৭টা বা‌সে যাত্রী তোলা হ‌চ্ছে। সিএন‌জি চা‌লিত অ‌টো‌রিকশায় ভূঞাপুর থেকে চন্দ্রা পর্যন্ত ভাড়া নেওয়া হ‌চ্ছে জনপ্রতি ৬০০ টাকা ক‌রে। এ ছাড়া ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে ঢাকামুখী মানুষের ঢল নেমেছে। কর্মস্থ‌লে ফেরা এসব শ্রমজী‌বী মানুষ খোলা ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেটকার, সিএনজি ও মোটরসাইকেল যোগে গাদাগাদি করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। তাদের কাছ থেকে স্বাভা‌বি‌কের চে‌য়ে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া আদায় করা হ‌চ্ছে। মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্বপাড়, এলেঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, টাঙ্গাইল বাইপাস, রাবনা বাইপাস, মির্জাপুর অং‌শে যাত্রীদের ব্যাপক ভিড় রয়েছে।

এ সময় প‌রিবহন না পে‌য়ে অ‌নেক‌কে হেঁটে যেতে দেখা গে‌ছে। মহাসড়‌কে স্বাস্থ্য ঝুঁকি নি‌য়ে চলাচল করলেও এ বিষয়ে পুলিশের তেমন কোনো তৎপরতা দেখা যায়নি। বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কথা হয় পোশাক শ্রমিক ই‌তি, ইশরাত, সু‌ফিয়ার সঙ্গে। এ সময় তারা জানান, ছু‌টি নি‌য়ে ঈ‌দে বা‌ড়ি‌তে আস‌ছিলাম। গণপ‌রিবহন চালু না করে কীভা‌বে পোশাক কারখানা খুলে দিলো? এখন শ্রমিকরা কীভা‌বে কর্মস্থ‌লে ফির‌বে? কিছু যানবাহন পাওয়া যায় তা‌তেও তিনগুন ভাড়া চাওয়া হ‌চ্ছে। নির্ধা‌রিত সম‌য়ে কা‌জে যোগদান কর‌তে না পার‌লে চাক‌রি থাক‌বে না।

র‌ফিকুল ইসলাম কাজ ক‌রেন ঢাকার এক‌টি পোশাক কারখানায়। কারখানা খোলার ঘোষণা আর কোম্পানি থে‌কে নির্ধা‌রিত সম‌য়ে কা‌জে যোগদা‌নের জন্য বলা হ‌য়ে‌ছে তা‌কে। ফ‌লে চাক‌রি বাঁচা‌তে প‌রিবার নি‌য়ে যে‌তে বাধ্য হ‌চ্ছেন। তি‌নি জানান, কোম্পানি থে‌কে কারখানা খোলার নো‌টিশ দেওয়া হ‌য়ে‌ছে। এখন চাক‌রি বাঁচা‌তে ঝুঁকি নি‌য়ে হ‌লেও কর্মস্থ‌লে ফির‌তে হ‌বে। এ‌ বিষ‌য়ে মহাসড়‌কের এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাতের সঙ্গে যোগা‌যোগ করা হ‌লে তি‌নি ফোন রি‌সিভ ক‌রেন‌নি।

ফরমান/মস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: