প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পুলিশকে ঘুষ না দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে চোখ বেঁধে মারপিট, প্রতিবাদে মানববন্ধন

   
প্রকাশিত: ৪:১১ অপরাহ্ণ, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

রবিন খান, সিংড়া (নাটোর) থেকে: নাটোরের সিংড়া থানার এএসআই সানোয়ার হোসেন কর্তৃক চামারী ইউনিয়নের বিলদহর বাজারের ব্যবসায়ী ওসমান গনী কে বেদম মারপিট, আটক এবং হয়রানী মুলক মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে এবং বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে সত্য উদঘাটনের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ব্যবসায়ীর স্ত্রী, কন্যা সহ স্থানীয় জনসাধারণ।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টায় বিলদহর বাজারে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ওসমান গনির স্ত্রী আর্জিনা বেগম, তার জামাই জাহিদ হাসান জীবন ও মেয়ে ফারহানা খাতুন।

ওসমান গনির স্ত্রী আর্জিনা বেগম বলেন, সকাল ১০ টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে যাবার পথে আমার স্বামীকে এএসআই সানোয়ার ধরে হ্যান্ডক্যাপ পরায়, সে জানতে চায় আমার কি অপরাধ কেন হ্যান্ডকাপ পরাচ্ছে, আমার বিরুদ্ধে কোনো ওয়ারেন্ট আছে। তখন সে বলে আমি মন্ত্রীর সাথে কথা বলেছি। তখন সে এএসআই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং বেধরক মারপিট করতে থাকে এবং উত্তেজিত হয়ে বলে কাউকে টাইম নাই।

ওসমান গনির মেয়ে ফাহিমা ও ফারহানা জানান, আমার আব্বার কাছ থেকে দুদফায় ৪০ হাজার টাকা এএসআই সানোয়ার নেয়। আরো ১ লক্ষ টাকা দাবি করে আসছিলো। তাঁর বাবা কে থানায় নিয়ে গিয়ে ও পেটানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

তবে এএসআই সানোয়ার হোসেন এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়। তাদের কে প্রমান করতে হবে।

চামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম মৃধা জানান, গতকাল এ বিষয়ে আমার পরিষদে দু পক্ষকে মিমাংসার জন্য ডাকছিলাম। এখানে আসার কথা ছিলো। পরে শুনি পুলিশ তাঁকে থানায় ধরে নিয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, গতকাল রবিবার এএসআই সানোয়ার কে মারপিট এবং আদালতের নির্দেশ অমান্য করায় ওসমান গনির বিরুদ্ধে এসআই মোজাম্মেল বাদী হয়ে সিংড়া থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলা নং ৩৮।

ফরমান/মস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: