প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আবদুল কাদির

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

এিশালে আ.লীগের সম্মেলন দেখতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

   
প্রকাশিত: ১২:০০ পূর্বাহ্ণ, ২২ জুলাই ২০২২

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন দেখতে গিয়ে দুই গ্রুপের দ্বন্দ্বে আবির (১৮) নামে এক যুবক ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে। এই ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) বিকেল ৪টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত আবির ময়মনসিংহ মহানগরীর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কৃষ্টপুর এলাকার আবুল কালাম ছেলে। সে তার বাবার ভাঙ্গারীর ব্যবসা দেখাশোনা করতেন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপতালের পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক জুলহাস উদ্দিন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, হাসপাতালে আনার সাথে সাথেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। পরে মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপতালের মর্গে রাখা হয়েছে।ত্রিশাল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মাইন উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, ত্রিশাল উপজেলা আ.লীগের সম্মেলন চলছে। সম্মেলন শুরু হওয়ার আগে, সম্মেলন থেকে প্রায় ৩০০ গজ দুরে পৌর শহরের সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে বেলা আনুমানিক তিনটার দিকে দুই গ্রুপের কথাকাটার জেরে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। তবে, কি কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে। তা এখনো জানা যায়নি। বিষয়টি জানতে পুলিশ কাজ করছে।

এবিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ কামাল আকন্দ গণমাধ্যমকে বলেন, মহানগরীর কৃষ্টপুর এলাকার জনি ও রক্সি নামক গ্রুপের সদস্যরা ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন দেখতে যায়। সেখানে গিয়ে জনি ও রক্সি গ্রপের সদস্যদের মাঝে কথা কাটাকাটির জেরে আরিবকে ছুরিকাঘাত করে রক্সি গ্রপের সদস্য। পরে আবিরের বন্ধু পলাশ তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, এটা আওয়ামীলীগের সম্মেলন কেন্দ্রীক কোন ঘটনা না। দুইটা গ্রুপই সম্মেলন দেখতে গিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে ছুরিকাঘাতে আবিরের মৃত্যু হয়। মুল ঘটনা জানতে আটককৃত তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানান তিনি। নিহতের বাবা আবুল কালাম বলেন, আমার ছেলে আমার ব্যবসায় সহাযতা করত। ঘটনার আগে পলাশের সাথে আবির ত্রিশাল যায়। সেখানেই আবির ছুরিকাঘাতে আহত হয়ে মারা গেছে। তবে, কেন ত্রিশাল গেছিল এবং কারা আমার ছেলেকে খুন করেছে পলাশ সব বলতে পারবে।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: