প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন জেলেরা

   
প্রকাশিত: ৭:৫৯ অপরাহ্ণ, ২২ জুলাই ২০২২

আরিফ হোসেন, চরফ্যাসন (ভোলা) থেকে: সরকারের দেওয়া ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে মাছ শিকারে যাচ্ছেন চরফ্যাসন উপজেলার জেলেরা। এই উপজেলায় সাগরে মাছ শিকার করছেন প্রায় ৫০ হাজার জেলে। নিষেধাজ্ঞা চলমান সময়ের মধ্যে সামুদ্রিক ট্রলার, জাল ও ইঞ্জিনসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি মেরামত করতে দেখা গিয়েছিল জেলেদের। উপজেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা যায়, সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদ সম্পদ সংরক্ষণ, বাধাহীন প্রজননের লক্ষ্যে গত ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত ৬৫ দিন সামুদ্রিক জলসীমায় সকল প্রকার মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল সরকার।

শুক্রবার (২২ জুলাই) সরেজমিন গিয়ে দেখা যায, শুক্রবার সকাল থেকেই উপজেলার জেলে পল্লীগুলোতে বইছে আনন্দের জোয়ার, জেলেদের মুখে ফুটছে হাসি। দীর্ঘদিন পর জেলের জালে ধরা পড়বে ঝাঁকে ঝাঁকে রূপালী ইলিশ, এমন আশায় সমুদ্রে নামবেন জেলেরা।

উপজেলার সামরাজ, মাদ্রাজ, বকশি, খেজুর গাছিয়া, পাচঁকপাট, আটকপাট, চরকচ্ছপিয়া, ঢালচর ও চরপাতিলার জেলেরা জানান, ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে ২৩ জুলাই মধ্যে রাতে সমুদ্রে যাবো মাছ ধরার জন্য। কিন্তু আবহাওয়া খারাপ হওয়াটায় আমাদের চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুক্রবার ভোর থেকে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি, নদীও কিছুটা উত্তাল। অতিরিক্ত জোয়ার।

এভাবে বৃষ্টি হতে থাকলে গভীর সমুদ্রে গিয়ে মাছ শিকার করা সম্ভব হবে না বলে জানান তারা। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার জানান, ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত ৬৫ দিন সমুদ্রে মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল সরকার। ২৩ জুলাই রাত ১২ টার পর থেকে জেলেরা অবাধে মাছ শিকার করতে পারবেন।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: