কামরুল হাসান অভি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

রাবির ভর্তিযুদ্ধ শুরু ২৫ জুলাই: জালিয়াতি রোধে ১৫ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা

   
প্রকাশিত: ৪:০৭ অপরাহ্ণ, ২৩ জুলাই ২০২২

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতক শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৫ জুলাই। ‘সি’ (বিজ্ঞান) ইউনিটের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শুরু হবে এই ভর্তিযুদ্ধ। এবারের ভর্তি পরিক্ষাকে ঘিরে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা ও যেকোন প্রকার জালিয়াতি ও কারসাজি ঠেকাতে ১৫ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

শনিবার (২৩ জুলাই) সকাল ১১টায় সিনেট ভবনের অনুষ্ঠিত এক সাংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার।

সম্মেলনে জানানো হয়, এ বছর ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সার্বিকভাবে সচেষ্ট রয়েছে। তাই ভর্তি পরীক্ষার সার্বিক নিরাপত্তায় রয়েছে- কমিটি ও উপ- কমিটিসমূহ, ইউনিটভিত্তিক কমিটিসমূহ, পুলিশ প্রশাসন নিয়ন্ত্রিত আইন- শৃংঙ্খলা বিষয়ক কমিটিসমূহ, র‍্যাব ও সকল গোয়েন্দা সংস্থা, পুলিশ, প্রক্টর দপ্তর, ছাত্র- উপদেষ্টা দপ্তর, জনসংযোগ দপ্তর, আইসিটি সেন্টার, পরিবহণ দপ্তর, হল প্রশাসন, বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশিং ফোরাম, স্কাউট ও বিএনসিসি, সেচ্ছাসেবী সংগঠন। যারা ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ক্যাম্পাসের ভিতরে এবং বাহিরে সার্বিক তৎপরতা চালু রাখবে।

সম্মেলনে পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের নির্দেশনার বিষয়ে জানানো হয়েছে, প্রতিদিন পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষা কক্ষের প্রবেশগেট খুলে দেয়া হবে। পরীক্ষা চলাকালে কোন ভর্তিচ্ছু পরীক্ষা কক্ষের বাইরে যেতে পারবে না এবং পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন ও ক্যালকুলেটরসহ মেমোরীযুক্ত অন্য কোন ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে রাখা যাবে না।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড.গোলাম সাব্বির সাত্তার জানান, এবারের ভর্তি পরিক্ষায় A ইউনিটে কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান ও চারুকলা অনুষদভুক্ত ২৭টি বিভাগসহ শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট অন্তর্ভুক্ত আছে। B ইউনিটে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদভুক্ত ৬টি বিভাগ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট এবং C ইউনিটে বিজ্ঞান, কৃষি, প্রকৌশল, জীববিজ্ঞান ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ২৬টি বিভাগ অন্তর্ভুক্ত আছে।

বিশেষ কোটাসহ মোট আসন সংখ্যা ৪ হাজার ৬ শত ৪১টি। এই আসনের বিপরীতে মোট ১ লক্ষ ৭৮ হাজার ২৬৮টি চূড়ান্ত আবেদন জমা হয়েছে। এর মধ্যে A ইউনিটে ৬৭ হাজার ২৩৭টি, B ইউনিটে ৩৮ হাজার ৬২১টি এবং C ইউনিটে ৭২ হাজার ৪১০টি চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন হয়। এবার একক আবেদনকারীর সংখ্যা ১ লক্ষ ৫০ হাজার ৪২৯ জন। এবারে এক ঘন্টাব্যাপী ভর্তি পরীক্ষা এমসিকিউ পদ্ধতিতে গ্রহণ করা হবে।

সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্যদ্বয় অধ্যাপক ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও অধ্যাপক ড. সুলতান-উল-ইসলাম, জনপ্রশাসন দপ্তর প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে এবং রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: