প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মো: মিজানুর রহমান

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

হাটগোপালপুরে গাক এনজিও’র বিরুদ্ধে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ

   
প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, ২৪ জুলাই ২০২২

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হাটগোপালপুরে গ্রাম উন্নয়ন কর্ম (গাক) নামের একটি এনজিও’র বিরুদ্ধে গ্রাহক হয়রানি ও গ্রাহকদের সাথে ঋণ দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে হাটগোপালপুর এলাকার গ্রাহক ও ব্যবসায়ীরা। প্রতিবাদে অফিসও ঘেরাও করে তারা।

জানা যায়, ২০২১ সালের ২৯ আগস্ট গ্রাম উন্নয়ন কর্ম (গাক) হাটগোপালপুর বাজারে শাখা স্থাপন করে। এরপর থেকেই সংস্থাটি এলাকায় ঋণ দেওয়ার নামে সদস্য সংগ্রহ শুরু করে। ইতিমধ্যে ৩’শ সদস্য সংগ্রহ করেছে তারা। গ্রাহকদের স্বল্প সুদে ঋণ দেওয়ার নাম করে ১৩০ টাকা চাঁদা নিয়ে ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে সদস্য করা হয়। সেই সাথে প্রতি লাখে ৫ হাজার টাকা করে সঞ্চয় জমা নিয়েছে। এর কয়েক সপ্তাহের মধ্য গ্রাহকদের ঋণ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত কয়েক মাস যাবত ঋণ দেওয়ার নামে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ব্লাক চেক নিয়ে ঋণ না দিয়ে দিনের পর দিন হয়রানি করছে।

ভুক্তভোগী পানামী গ্রামের ব্যবসায়ী হাফিজুর রহমান বলেন, আমাকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে ৩ টি ব্লাক চেক নিয়েছে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নেওয়ার পর ৫ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা থাকলেও এখনো তারা ঋণ না দিয়ে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। এখন টাকাও দিচ্ছে না আবার চেকও দিচ্ছে না। শিহাব উদ্দিন নামের আরেক গ্রাহক অভিযোগ করে বলেন, আমাকে ৩ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা বলে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। আমার কাছ থেকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে কিছু টাকাও নিয়েছে। কিন্তু এখনো টাকা দিচ্ছে না।

একই অভিযোগ করেন, আহম্মদ আলী, তুলনা খাতুন, ইন্দ্রজিৎ নামের কয়েকজন গ্রাহক। তাদের ঋণ দেওয়ার আশ্বাস দিলেও টাকা দেওয়া হচ্ছে না। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ওই শাখার ব্যবস্থাপক শরিফুল ইসলাম বলেন, টাকা দেওয়ার কথা ছিল ঠিকই। আমার কিছু করার নেই। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কথা অনুযায়ী আমি গ্রাহকদের কাছ থেকে সময় নিচ্ছি।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: