পাঁচ মানি এক্সচেঞ্জের লাইসেন্স স্থগিত, ৪২টিকে শোকজ

   
প্রকাশিত: ৫:১৬ অপরাহ্ণ, ২ আগস্ট ২০২২

ফাইল ছবি

ডলার নিয়ে কারসাজি করার অপরা‌ধে পাঁচ মানি চেঞ্জারের লাইসেন্স স্থগিত করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। পাশাপা‌শি ৪২ মানি এক্সচেঞ্জকে শোকজ করা হয়েছে। এছাড়া লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করায় ৯টি প্র‌তিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নি‌তে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলা হ‌য়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান লাইসেন্স না নিয়ে এতদিন ব্যবসা করে আসছিল বলে জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম। আজ মঙ্গলবার (২ আগস্ট) গণমাধ্যমকে তিনি এ তথ্য জানান।

সিরাজুল ইসলাম বলেন, নানা অনিয়ম পাওয়ায় আমাদের অভিযানে পাঁচটি মানি চেঞ্জার হাউজকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। যাদের লাইসেন্স নেই তাদের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে অবহিত করা হয়েছে, ডলারে অনিয়ম পেলেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যবস্থা নেবে।পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিদর্শন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, বিসমিল্লাহ মানি এক্সচেঞ্জ, অঙ্কন মানি এক্সচেঞ্জ ও ফয়েজ মানি এক্সচেঞ্জসহ স্থগিত হওয়া পাঁচটি মানি এক্সচেঞ্জ তাদের শোকজের বিষয়ে যথাযথ উত্তর দিতে পারলে লাইসেন্সের বিষয়ে বিবেচনা করা হবে।

ডলারের দাম নিয়ন্ত্রণে অভিযান অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ডলার নিয়ে কারসাজি ও অপরাধীদের দৌরাত্ম্য কমাতে বাংলাদেশ ব্যাংক ও জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একাধিক টিম মাঠে কাজ করছে বলেও জানান সিরাজুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, করোনার পরবর্তী সময়ে বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় প্রচুর ডলারের ব্যবহার শুরু হয়। এতে ডলারের খোলা বাজারে তৈরি হয় অস্থিরতা। এ সময় জ্বালানি তেল, ভোগ্যপণ্য ও জাহাজ ভাড়া বেড়ে যাওয়াই এর অন্যতম কারণ। পরবর্তী সময়ে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধও রসদ জুগিয়েছে এ অস্থিরতায়। দেশীয় ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমতো ডলারের দাম বাড়িয়ে এ সংকটকে আরও বাড়িয়ে দেন। এমন পরিস্থিতিতে ডলারের দাম নির্ধারণ করে দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। কিন্তু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বেঁধে দেয়া মূল্যকে গুরুত্ব না দিয়ে ব্যবসায়ীরা চলতে থাকেন ইচ্ছেমতো।

নাঈম/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: