প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

এটা তো বাংলাদেশের আইনেও অনুমতি নেই, সাকিব কাণ্ডে পাপন

   
প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, ৪ আগস্ট ২০২২

অনলাইন বেটিং সাইটের সহযোগী প্রতিষ্ঠানের দূত হিসেবে সাকিব আল হাসানের চুক্তিবদ্ধ হওয়ার ঘটনায় মুখ খুলেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তার কথায় স্পষ্ট, সাইপ্রাসভিত্তিক ম্যারিকিট হোল্ডিংসের মালিকানাধীন বেট উইনারের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান বেট উইনার নিউজের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে সাকিবের চুক্তিবদ্ধ হওয়ার ঘটনা মোটেও ভালোভাবে নেয়নি বিসিবি। এ বিষয়ে তদন্তে যাচ্ছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই সংস্থা।

ইতিমধ্যেই মাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সাকিবের ভেরিফায়েড পেইজ এবং বেটউইনারের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান বেটউইনার নিউজ- দুই পক্ষের তরফ থেকেই এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এসেছে। তবু বৃহষ্পতিবার বিসিবির পরিচালনা পর্ষদের সভায় তা নিয়ে সভাপতি নাজমুল হাসানের কোনো সিদ্ধান্তে যেতে না পারার কারণ, ‘(এরকম তো) নাও হতে পারে, এরকম একটি কথা এসেছে বোর্ডে। নাও হতে পারে, তাহলে তো সিদ্ধান্ত আমি নিতে পারছি না। তারপরও বলে দিয়েছি দ্রুত জানতে। তবে বোর্ডের অবস্থান খুবই পরিষ্কার। এটি কোনোভাবেই বিসিবি অনুমোদন করবে না।’

বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, তাদেরকে না জানিয়ে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগতভাবে এ চুক্তি করেছেন সাকিব। এ বিষয়ে বোর্ডের কিছুই জানা ছিল না। তবে এখন যেহেতু আলোয় এসেছে বিষয়টি, তাই বোর্ডের পক্ষ থেকে সাকিবের কাছে এ বিষয়ে পরিষ্কার জানতে চাওয়া হবে, এটি সত্যিই বেটিং প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি কি না।

যদি প্রমাণ পাওয়া যায় যে সাকিব বিতর্কিত চুক্তিটা করেছেন, সেক্ষেত্রে কি টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্বের জন্য বিবেচিত হবেন সাকিব? এমন প্রশ্নও হল পরিচালনা পর্ষদের সভার পর আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে। নাজমুল আপাতত নিরাপদ দূরত্বে থেকেই জবাব দিলেন, ‘আগে জিনিসটা জেনে নেই।’ জানার জন্য তদন্ত করার কথাও বললেন, ‘এটি তো শুধু ক্রিকেট বোর্ডেই শুধু নয়, বাংলাদেশের আইনেও অনুমতি নেই। আমাদের দেশের আইন এটি অনুমোদন করে না। এটি তো অবশ্যই সিরিয়াস ইস্যু। এজন্যই ফেসবুক পোস্টিংয়ের ওপর নির্ভর না করে আমাদের তদন্ত করতে হবে। খুঁজে দেখতে হবে আসলে কী হয়েছে। এটি সত্যি হয়ে থাকলে বোর্ডের যা যা করার, অবশ্যই বোর্ড করবে।’

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: