রফিকুল ইসলাম

বান্দরবন প্রতিনিধি

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি

বান্দরবানের পর্যটন শিল্পে বিরূপ প্রভাবের আশঙ্কা

   
প্রকাশিত: ৩:০৯ অপরাহ্ণ, ৬ আগস্ট ২০২২

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে বান্দরবানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইতিমধ্যে বিরূপ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। বিশেষ করে পর্যটন শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন এলাকার সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। জেলার পর্যটকবাহী গাড়িগুলোতে ইতিমধ্যে ভাড়া বাড়ানো শুরু হয়েছে। এছাড়া যাত্রীবাহী বাসগুলোতেও যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। তেলের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার ইতিমধ্যে বান্দরবানে পর্যটকদের আগমন কমেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

বান্দরবান হোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন করোনাকালীন পর্যটন শিল্পের ক্ষতি এখনো পুষিয়ে উঠতে পারেনি ব্যবসায়ীরা। এর মধ্যে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির ফলে পর্যটকদের ভ্রমণে আগ্রহ কমবে। বেশ কিছু জায়গায় পর্যটকবাহী গাড়িগুলো বাড়তি ভাড়া নেয়ায় পর্যটকরা বিব্রতকর অবস্থায় পড়ছে।

ঢাকা থেকে বান্দরবানে বেড়াতে আসা নারী পর্যটক রুমিনা পারভিন জানিয়েছেন, পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে এখন যাত্রীবাহী গাড়িগুলো আগের তুলনায় ভাড়া বাড়িয়ে নিচ্ছে। আগে থেকে এ বিষয়ে না জানার কারণে অনেক পর্যটক সমস্যার মধ্যে পড়ছে। শহরের কাছে নীলাচল পর্যটন কেন্দ্রে বেড়াতে আসা চট্টগ্রামের পর্যটক মোঃ ইসমাইল হোসেন জানান, তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে বিভিন্ন জায়গায় যাত্রীবাহী বাস বন্ধ রয়েছে।

এছাড়া বিভিন্ন জায়গায় জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধি সহ নানা প্রভাব পড়ছে। বান্দরবানে বেড়াতে এসে এর প্রভাব উপলব্ধি করতে পারছেন বলে তিনি জানান। এলাকার জিপ মাইক্রো চালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামাল জানিয়েছেন তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে পর্যটকবাহী জীপগুলোর ভাড়া বাড়ানো ছাড়া কোন উপায় নেই। কিছু কিছু চালক ইতিমধ্যে বাড়তি ভাড়া নিচ্ছে বলে আমরা খবর পাচ্ছি। পর্যটন শিল্পের উপর এটি বিরূপ প্রভাব পড়বে বলে তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে বর্ষার এই সময়ে পাহাড়ে মেঘ বৃষ্টি রোদ দেখতে বান্দরবানে অনেক পর্যটকই বেড়াতে আসেন। তেলের মূল্য বৃদ্ধির পরেই বান্দরবানে পর্যটক আগমনের সংখ্যা কমেছে। হোটেলের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন ইতিমধ্যে যারা আগে থেকে বুকিং দিয়েছেন অনেকেই বুকিং বাতিল করেছেন। করোনার পর তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বান্দরবানের সম্ভাবনাময় পর্যটন শিল্প আরো একবার ধাক্কা খাবে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। এ ব্যবসায় আগেকার ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবেন কিনা তা নিয়েও শংঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা।

এদিকে তেলের মূল্য বৃদ্ধির সাথে বান্দরবানের বিভিন্ন জায়গায় জিনিসপত্রের দাম ইতি মধ্যে বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। দুর্গম এলাকায় যাতায়াতকারী যানবাহন সহ ট্রাকগুলোতেও বাড়তি ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। ফলে পণ্যের দাম বাড়ছে। বাড়ছে সবজির দামও। এদিকে তেলের সংকটের আতঙ্কে বান্দরবানের পেট্রোলপাম্প সহ বিভিন্ন তেলের দোকানগুলোতে ভিড় বাড়ছে। তবে তেলের আপাতত সংকট নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: