প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

৭ জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ

   
প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, ৮ আগস্ট ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

দেশের সাতটি জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। দেশজুড়ে ভ্যাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে। আগামী তিন দিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে। এরপর গরমের তীব্রতা কমে আসবে। সোমবার (৮ আগস্ট) আগামী ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

আবহাওয়াবিদ শাহানাজ সুলতানা জানান, বর্তমানে রাজশাহী, রংপুর, নীলফামারী এবং সিলেট বিভাগের চারটি জেলা সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারসহ মোট সাতটি জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাছে, যা অব্যাহত থাকতে পারে। তবে সব বিভাগেই বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এ ছাড়া বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে একই এলাকায় অবস্থান

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি বর্ষণ হতে পারে। বৃষ্টিপাতের প্রবণতা আগামী তিন দিন বাড়তে পারে।

এ সময় সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। জানা যায়, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সোমবার সর্বনিম্ন ২৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। আগের দিন রোববার (৭ আগস্ট) নীলফামারীর সৈয়দপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ ছাড়া ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ওড়িশা-পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের অদূরে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, ওড়িশা, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি থেকে প্রবল অবস্থায় রয়েছে। এছাড়া ঢাকায় সোমবার দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: