প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

সমালোচনা করে সাকিবকে ৩ লাখ টাকা দিতে চান ব্যারিস্টার সুমন

   
প্রকাশিত: ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, ১২ আগস্ট ২০২২

কয়েকদিন পরপরই বিতর্কে নাম জড়ান দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। সম্প্রতি জুয়া সংশ্লিষ্ট একটি প্রতিষ্ঠান বেটউইনার নিউজের শুভেচ্ছাদূত হয়ে ফের আলোচনার জন্ম দিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশ ক্রিকেটে ও আইনে এ ধরণের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কোনো ধরণের চুক্তি বা প্রচারের বৈধতা না থাকলেও সাকিব আল হাসান এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন স্ব-উদ্যেগে এবং বিসিবকে না জানিয়ে। এরপর থেকেই ‘বিতর্কিত’ এই চুক্তি নিয়ে ক্রিকেট বোর্ড থেকে সাধারণ ক্রিকেট অনুরাগীদেরও বিরাগভাজন হয়েছেন তিনি।

সাকিবের এমন কাণ্ডে ছাড় দেয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা বিসিবি-ও। হয় সাকিবকে ওই চুক্তি থেকে সরে আসতে হবে নয়তো জাতীয় দল থেকে বাদ পড়তে হবে এমন ঘোষণাও দিয়ে বসেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। এর পরপরই বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সেই চুক্তি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত জানান সাকিব।

সাকিবের এমন কর্মকাণ্ড মোটেও ভালোভাবে নেয়নি সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে ভক্ত অনুরাগীরাও। তাদেরই একজন আইনজীবী এবং সমাজকর্মী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন। সম্প্রতি এই সাকিবের এই ঘটনায় দেশসেরা অলরাউন্ডারের কড়া সমালোচনা করেছেন তিনি। শুক্রবার (১২ আগস্ট) নিজের ফেসবুক পেজ থেকে এক ভিডিও পোস্ট করে ব্যারিস্টার সুমন সাকিবকে ৩ লাখ টাকা প্রদানের ঘোষণা দেন।

যেখানে তিনি বলেন, ‘সাকিব আল হাসান কিছুদিন আগে জুয়ার তথ্য গোপন করার জন্য এক বছর ক্রিকেট থেকে বহিষ্কৃত ছিলেন। উনি ক্রিকেট খেলতে পারেন নাই। এবার তিনি আরো একটা জুয়ার প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছা দূত হওয়ার কারণে আমাদের ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি বলেছে যে আপনি হয় ক্রিকেট খেলবেন না হলে জুয়ার দিকে যাবেন। উনি বাধ্য হয়ে গতকাল ক্যানসেল করছেন (চুক্তি)। ‘

বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটারের এসব কর্মকাণ্ড দেখে তরুণরা বিপথগামী হবে বলেও মনে করেন ব্যারিস্টার সুমন, ‘আমার কথা হলো, সব দায়িত্ব কি রাজনীতিবিদদের? সব দায় কি প্রধানমন্ত্রীর? এই লোকটার এই সাকিব আল হাসানের দেড় কোটি ফলোয়ার ফেসবুকে দেখলাম। সব তরুণ ফলোয়ার। এই যে লোকটার যত কর্মকাণ্ড, পরিষ্কারভাবে লোকজন বলে যে সাকিব আল হাসান নিজের জন্য খেলে, দেশের জন্য খেলে না। সাকিব টাকার বিষয়ে কোনো কম্প্রোমাইজ করে না। ‘

ভিডিওতে একটা পর্যায়ে সাকিবের প্রতি ঘৃণাও প্রকাশ করেন ব্যারিস্টার সুমন- ‘এই সাকিব আল হাসান যদি ঠিক না হয়, তাহলে দেশের ক্রিকেটাররা, ফুটবলাররা কী শিখবে? আমার আর তার প্রতি কিছু বলার নাই, আমি শুধু মনে মনে ঘৃণা প্রকাশ করতেছি তার জন্য। যদি তার এলাকার কেউ থেকে থাকেন, সাকিব আল হাসানের সঙ্গে আমার যোগাযোগ করার যোগ্যতাও নাই, সে ফোন ধরে কি না জানি না , আমি তিন লাখ টাকা জমা রাখছি তার জন্য, তার পরিবারের খরচের জন্য; যদি খরচের কারণে তার এত টাকা লাগে… তার তো টাকার অভাব নাই। আল্লাহ তারে অনেক টাকা দিছে। ‘

সাকিবকে তিন লাখ টাকা দিতে চেয়ে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আমার কথা হচ্ছে যে এত বড় সেলিব্রিটি হয়ে দেশের নাম ব্যবহার করে এখন দেশটার বারোটা বাজাইতে চাও সাকিব আল হাসান? তাহলে দেশটা বাঁচাবে কে? তুমি তো আমেরিকা চলে যাবা। কিন্তু এখানে যারা থাকবে, তাদের কী হবে? এটা তোমার বিবেকের কাছে প্রশ্ন রাখলাম। আর কেউ যদি একটু যোগাযোগ করতে পারেন, তা হলে আমাকে বইলেন, সাকিব আল হাসানের অ্যাকাউন্ট নাম্বারটা যদি দেন, উনি যদি রাজি থাকেন তাহলে এই তিনটা লাখ টাকা আমি সাকিবের অ্যাকাউন্টে দিতে চাই। ‘

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: