প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

আক্কাস আল মাহমুদ রিদয়

বুড়িচং, কুমিল্লা প্রতিনিধি

বুড়িচংয়ে চুরি ডাকাতি ও ছিনতাই ঠেকাতে গ্রামবাসীর বৈঠক

   
প্রকাশিত: ২:১৮ অপরাহ্ণ, ১৪ আগস্ট ২০২২

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে বিভিন্ন এলাকায় ছোটখাটো চুরির পাশাপাশি বেড়েছে ছিনতাই ও ডাকাতির মতো ঘটনা। প্রায় সময়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে চুরি ছিনতাই ও ডাকাতির খবর পাওয়া যাচ্ছে। এলাকাবাসীদের অভিযোগ কোনো ভাবেই ঠেকানো যাচ্ছে না চুরির ঘটনা।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় চোর, মাদক, ইভটিজিং সহ সমাজ বিরোধী সকল অপরাধ কর্মকাণ্ড বেড়ে গেছে।

সাম্প্রতিক বাকশীমুল গ্রামের ডাঃ আবুল হাসেম এর বাড়িতে চোরের একটি চক্র হানা দেয়। নিয়ে যায় স্বর্ণসহ মূল্যবান জিনিসপত্র। চোরের মূলহুতা বাকশীমুল গ্রামের মৃত আমান উদ্দিনের ছেলে মোঃ সুমন সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। সিসিটিভি ক্যামেরা পর্যালোচনা করে চোর সনাক্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে ডাঃ আবুল হাসেমের বড় ছেলে ও ব্যবসায়ী মোঃ শাহজালাল টুটুল বুড়িচং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।

এছাড়াও বুড়িচং সদরে কয়েকটি দোকানেও চুরি ঘটনা ঘটেছে সিসিটিভি ফুটেজ থাকার পরেও চোর এখনো ধরা পড়েনি। চুরি, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধ দমন করতে গত শুক্রবার উপজেলার বাকশীমূল গ্রামবাসী ঐক্যবদ্ধ হয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করে। এতে ওই গ্রামের হাজী সফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও আলহাজ্ব মোঃ আব্দুর রশিদ এর পরিচালনায় বৈঠকটি সম্পন্ন হয়। বাকশীমুল গ্রামে চোর, মাদক, ইভটিজিং সহ অনেক অপকর্ম বৃদ্ধি হওয়া গ্রামবাসীরা আতঙ্কে আছে।

চোরের দলেরা বিভিন্ন কলাকৌশল করে বসত ঘর থেকে নিয়ে যাচ্ছে স্বর্ণ, গয়না সহ নগদ অর্থ। বাকশীমুল গ্রামের সকল লোকজন মিলিত হয়ে বাকশীমূল কেন্দ্রীয় ঈদগাহ সংলগ্ন একটি বৈঠক করে। চোর, মাদক ও ইভটিজিং দমনে প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন হাজী মোঃ মফিজুল ইসলাম,আয়েত আলী মেম্বার, আবদুল বারেক ডাক্তার, কাসেম ইঞ্জিনিয়ার, হাজী তাজুল ইসলাম মাস্টার, মোঃ শাহজালাল টুটুল, মোঃ সেলিম এম. এ. সিরাজুল ইসলাম, মোঃ হাসান, মোঃ দুলাল, মাহফুজ মেম্বার, মোঃ জহিরুল ইসলাম, সহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন হাজী মফিজুল ইসলাম, মোঃ হাবিবুর রহমান, আবদুল বারী, মোঃ সুলতান আহমদ, মোঃ আবুল কাসেম, মোঃ তাজুল ইসলাম মাস্টার, হাজী মোঃ দানু মিয়া ডিলার, মোঃ ফুল মিয়া, আলী বাকের, মোঃ হাসান, মোঃ জহিরুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম, মোঃ দুলাল, দেলয়ার হোসেন, মাহবুব আলম, শাহজাহান, আবুল বাশার, হারুনুর রশিদ, পেরা মিয়া, মনু মিয়া, হাজী সুন্দর আলী, মোঃ জহিরুল ইসলাম, মোঃ জীবন বাচ্চু মিয়া, রিপন, আনোয়ার, তাহের, জামাল হোসাইন, ইদ্দিস মিয়া, জহির, মাসুদ রানা, মোঃ মুমিনুল ইসলাম, অদুদ, মোঃ সাদেকুর রহমান, হাবুল, শাকিল, মানিক মিয়া, আবুল কালাম, লিটন মিয়া, মোঃ বিল্লাল হোসেন, সুন্দর আলী, শামসুর রহমান, মোসলেম মিয়া, জজু মিয়া, কামাল হোসেন, আবদুল রশিদ, জামাল হোসাইন মাস্টার, খোরশেদ আলম, শাহ জালাল, মহাসিন, গিয়াস, হান্নান সহ গ্রামের প্রায় ৪০০/৫০০ লোক উপস্থিত ছিলেন।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: