প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পানিতে প্লাবিত বর-কনের বাড়ি, বিয়ে হলো মাদরাসায়

   
প্রকাশিত: ১১:০০ অপরাহ্ণ, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

ছবি - সংগৃহীত

দুবাই প্রবাসী রাকিব নামের এক যুবকের সাথে ফাতিমা আক্তারের বিয়ের কথা আগেই ঠিক ছিলো। টানা সাতদিন ধরে চলে বিয়ের আয়োজন। এরমধ্যেই নামে বৃষ্টি, প্লাবিত হয় বাড়ী। বাধ্য হয়ে নিকটস্থ একটি মাদরাসায় অতিথি আপ্যায়ন সেরে সেখানেই তাদের বিয়ের কাজ সম্পন্ন করা হয়। বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের বকশিরচরে এমন ঘটনা ঘটে।

বকশিরচর গ্রামের কালাম হাওলাদারের ছেলে রাকিবের হাওলাদারের সাথে একই গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে ফাতিমার বিয়ে ঠিক হয়। সাতদিন ধরে চলে বিভিন্ন আয়োজন। কিন্তু অতিবৃষ্টির কারণে বাধ্য হয় মাদ্রাসায় বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে।

আনোয়ার হোসেন জানান, দুই পরিবারের ৩০০ জন অতিথি দাওয়াত দেওয়া হয়েছিলো। প্রথমে ভেবেছিলাম বৃষ্টি কমবে, পানিও নেমে যাবে। আজ (বুধবার) বৃষ্টি কমলেও উঠানে পানি কমেনি। এজন্য কিছুটা কষ্ট হলেও পাশেই চাঁদপাশা মহিলা দাখিল মাদরাসায় অতিথি আপ্যায়ন করেছি। চেষ্টা থাকলেও অন্য গাড়ি রাস্তায় ঢুকাতে না পেরে ভ্যানে করে মেয়ে-জামাতাকে আমার বাড়ি থেকে নিয়ে গেছে।

কালাম হাওলাদার জানান, আমাদের বড় পরিকল্পনা ছিলো সন্তানদের বিয়ের আয়োজন করার। কিন্তু বৃষ্টির পানি এমনভাবে জমে ছিল তা সম্ভব ছিল না। শেষে যতটুকু সম্ভব ততটুকুতেই অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়েছে। তিনি জানান, রাকিব আমার বড় ছেলে এবং পুত্রবধূ ফাতিমা ওই পরিবারের সবার ছোট মেয়ে।

প্রসঙ্গত, বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের বকশিরচর নিচু এলাকা হওয়ায় নদীর পানি বৃদ্ধি বা টানা বৃষ্টি হলেই ইউনিয়নের অনেক এলাকা প্লাবিত হয়।

আশরাফুল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: