প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

স্বামী ও অন্য নারীকে একসাথে পেয়ে সমানতালে জুতাপেটা করলেন স্ত্রী

   
প্রকাশিত: ৭:০৭ অপরাহ্ণ, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

বাড়িতে বউ রয়েছে। এছাড়া এক কিশোরী মেয়ে ও ছেলের বাবাও তিনি। তবুও অন্য নারীকে নিয়ে আবাসিক হোটেলে ঘনিষ্ট মুহূর্তে কাটাতে যান দিনেশ গোপাল। কিন্তু খবর পেয়ে হোটেল কক্ষে ঐ নারীসহ স্বামীকে ধরে ফেলেন স্ত্রী নীলম। তারপর স্বামী ও ঐ নারীকে সমানতালে জুতাপেটা করেন ক্ষুব্ধ স্ত্রী। আর সেই ঘটনার ভিডিও করেন কিশোরী মেয়ে। সম্প্রতি  ভারতের উত্তরপ্রদেশের আগ্রার দিল্লি গেট এলাকার একটি হোটেলে চালঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটে। এরইমধ্যে ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

সম্প্রতি এক ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, আগ্রার দিল্লি গেট এলাকার একটি হোটেলে এক নারী তার স্বামীকে জুতাপেটা করেন। মূলত হোটেল কক্ষে অন্য এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় স্বামীকে দেখতে পেয়ে নিজেকে ঠিক রাখতে পারেননি ঐ স্ত্রী। এদিকে, স্বামী ও তার প্রেমিকাকে জুতা দিয়ে পেটানোর সেই ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করেন তাদের কিশোরী কন্যা। স্বামীকে হাতেনাতে ধরে মারমুখী হয়ে ওঠা ঐ নারীর নাম নীলম ও তার স্বামীর নাম দিনেশ গোপাল।

এছাড়া ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, এই প্রথম নয়, বহু দিন আগে থেকে তার স্বামী এ ধরনের কাজ করছেন। তাদের ১৬ বছর বয়সী এক মেয়ে ও ৯ বছর বয়সী এক পুত্রসন্তান রয়েছে। সন্তানরাও বাবার কীর্তি সম্পর্কে জানে। এমনকি কিশোরী এ কন্যা ঐ ব্যক্তিকে নিজের বাবা বলতেও অস্বীকার করেন। ঘটনার দিন বাবাকে হাতেনাতে ধরতে মা-মেয়ে তাকে অনুসরণ করে ঐ হোটেলে পৌঁছান। হোটেলে প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতেই সেই ভিডিও ক্যামেরাবন্দি করে কিশোরী। তারপরই জুতা হাতে নিয়ে মারপিট করেন ক্ষুব্ধ স্ত্রী।

তবে ভাইরাল ওই ভিডিও তে দেখা যায়, স্ত্রী মারধর শুরু করতে স্বামী বারবার ‘ক্ষমা করে দাও’ বলতে শোনা গেছে ভিডিওতে। ভিডিওতে স্ত্রীকে বলতে শোনা যাচ্ছে, আগেও একাধিক বার এমন বহু দিয়েছি, আজ আবারও এক জিনিস।স্বামীর পাশাপাশি তার সঙ্গে থাকা প্রেমিকাকেও ছাড় দেননি স্ত্রী নীলম। তাকেও মারধর করেন তিনি। অবশ্য পুলিশ এসে পরে পরিস্থিতি সামাল দেয়। সংবাদমাধ্যম বলছে, আগ্রার একটি হোটেলে নিজের প্রেমিকার সঙ্গে কিছু সময় কাটানোর জন্য আসেন ঐ ব্যক্তি। খবর পেয়েই হোটেলে চলে আসেন তার স্ত্রী। স্বামী কিছু বুঝে ওঠার আগেই এলোপাথাড়ি জুতার বাড়ি দিতে থাকেন তিনি।

মূলত স্বামীর আচরণ সন্দেহজনক হওয়ায় ঐ নারী তার স্বামীর ওপর নজর রাখার জন্য আত্মীয়দের অনুরোধ করেন। ঘটনার দিন আত্মীয়দের মধ্যেই একজন ঐ নারীকে খবর দেন। খবর পেয়েই সেখানে হাজির স্ত্রী। পুলিশ জানায়, তারা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলার খবর পেয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ জানায়নি। প্রেমিকা ও ঐ ব্যক্তি দুজনেই প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় হোটেল কর্তৃপক্ষ তাদের কক্ষ ভাড়া দেয় বলে জানা গেছে।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: