প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

রবিন খান

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

সিংড়ায় ৭টি দোকান ও ২ টি বাড়ি ভাংচুর, লুটপাট

   
প্রকাশিত: ২:২০ অপরাহ্ণ, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

নাটোরের সিংড়ার ইটালি ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আলিফ এর নেতৃত্বে পাকুরিয়া গ্রামে ২টি বাড়ি ও ৭টি দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। একই সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের কর্মীদের মারপিট ও মেম্বারের অফিসঘর ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল দুপুর থেকেই ইটালী ইউনিয়ন পরিষদে লোকজন জমা হতে থাকে। ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন ভাড়া করে ট্রাক, টেম্পু যোগে সোমবার বিকাল ৪টায় পাকুরিয়া গ্রামে প্রবেশ করে সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টা পর্যন্ত তান্ডব চালায়। এসময় আতংকে মানুষ ছুটোছুটি করতে থাকে। ঘটনার সময় আহসান হাবিবের ইলেকট্রনিকস দোকান, হাসানের মনোহারি দোকান, ভুট্টোর চা দোকান, রানার হোটেল, ফরিদের চায়ের দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করা হয় এবং টিপু ও আঃ আজিজের বাড়ি ভাংচুর করা হয়। বর্তমান মেম্বারের অফিস ভাংচুর করা হয়।

জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যায় পাকুরিয়া জামে মসজিদের ইমাম নিয়োগ করে সাবেক ইউপি সদস্য গ্রুপ। সাবেক ইউপি সদস্যের বাড়ি পার্শবর্তী হওয়ায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুর ইসলাম আরিফ এর প্রভাবে ইমাম নিয়োগ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। সোমবার সকালে বর্তমান মেম্বার সহ কয়েকজন কে আসামী করে থানায় অভিযোগ করে সাবেক মেম্বার গ্রুপ।

একই সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের কর্মীদের বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র দিয়ে মারপিট ও মেম্বারের অফিসঘর ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক আরিফুর ইসলাম আরিফ এর বিরুদ্ধে। জাহাঙ্গীর আলমের পিতা নজরুল ইসলাম ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

ইটালি ইউপি’র ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গত ইউপি নির্বাচনে জয়ের পর থেকে ইটালি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর ইসলাম আরিফ তাকে পদত্যাগপত্র দিতে বলে, না হলে দেখে নেয়া হবে বলে হুমকি দেয়। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল তাঁর লোকজন তান্ডব চালিয়েছে।

অভিযোগের ভিত্তিতে ইটালি ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুর ইসলাম আরিফ বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা।

সিংড়া থানার ওসি তদন্ত রফিকুল ইসলাম বলেন, ফোন পাওয়ার পরে ফোর্স পাঠানো হয়। ৯৯৯ থেকে কোনো ফোন আসেনি। স্থানীয় ভাবে ফোন পেয়ে ফোর্স পাঠানো হয়।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: