প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মাসুদ রেজা শিশির

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

‘মুক্তিযোদ্ধাদের ৩’শ থেকে ২০ হাজার টাকার সম্মানী ভাতা করেছেন শেখ হাসিনা’

   
প্রকাশিত: ৪:১৮ অপরাহ্ণ, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা দেওয়া শুরু করেছিল বঙ্গবন্ধু কণ্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। মাত্র ৩ শত টাকা দিয়ে শুরু করেছিলেন সেই ভাতা বাড়তে বাড়তে এখন ২০ হাজার টাকা। মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অনেকেই রাজনিতি করার চেষ্ঠা করা হয়েছিল, কিন্তু কেউ তাদের সম্মান দেওয়ার চেষ্ঠা করেনি। শুধু মাত্র বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ তাদের সম্মান দিয়েছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দিয়েছেন, তাদের ছেলে মেয়েদের চাকুরীর কোটা দিয়েছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বাড়ী বানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মুক্তিযোদ্ধাদের উন্নয়নে এক মাত্র আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনায় কাজ করেছেন, তাই তার অবদান মুক্তিযোদ্ধারা ভূলে গেলে বেঈমানী করা হবে। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা সব সময়ই শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাব।

পাংশা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মঙ্গলবার উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে পাংশা উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট আইডি কার্ড বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপি এসব কথা বলেন।

পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ আলী’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ফরিদ হাসান ওদুদ, সাবেক এমপি আব্দুল মতিন মিয়া, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ চাদ আলী খান, সাবেক অতিরিক্ত সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ প্রমুখ।

এ সময় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জালাল উদ্দিন বিশ্বাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ রোকেয়া খাতুন, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শ্যামল কুমার বিশ্বাস, ১০টি ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারগনসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় পাংশা উপজেলার ২৩৭ জন জীবিত মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে স্মার্ট আইডি কার্ড ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। একই সাথে পাংশা উপজেলার ১৪৮ জন মৃত মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যদের নিকট ডিজিটাল সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়েছে। মোট ৩৮৫ জনের মধ্যে এ কার্ড ও সনদ বিতরন করা হয়।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: