প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

অদ্বৈত কুমার আকাশ

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি

নন্দীগ্রামের ৪৬ টি মণ্ডপে চলছে দুর্গাপূজার শেষ সময়ের প্রস্তুতি

   
প্রকাশিত: ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

রোববার মহালয়ার মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গাপূজার দিনক্ষণ গণনা শুরু হয়েছে। বগুড়ার নন্দীগ্রামে এবার ৪৬টি মণ্ডপে চলছে দুর্গাপূজার আয়োজন। এ বছর দেবীদুর্গা হাতির পিঠে চড়ে পৃথিবীতে অর্থাৎ বাবার বাড়িতে আসবেন। আর কৈলাসে স্বামীর বাড়িতে ফিরবেন নৌকায় চড়ে। পঞ্জিকা অনুযায়ী ১ অক্টোবর শনিবার ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। এ পূজা ৫ অক্টোবর বুধবার বিজয় দশমীর মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

সরেজমিনে গিয়ে ও আয়োজনকারীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দুর্গাপূজার বাঁকী আর মাত্র দুই দিন। তাই প্রতিমা তৈরির কাজ, ডেকোরেশনের কাজ, হাটবাজার করা ও নাড়ু বরি তৈরি করতে বাড়ির মহিলারাসহ সবাই এখন ব্যস্ত সময় পার করছে।

উপজেলার থালতাশ্বরী দুর্গা মন্দিরে প্রতিমাগুলোতে রং লাগিয়ে সুসজ্জিত করছেন ওই গ্রামের মৃৎশিল্পী সুব্রত কুমার। তিনি বলেন, প্রতিমা তৈরি করতে অনেক সময় লাগে। প্রতিমা তৈরি সব জিনিসের দাম বেশি তাই প্রতিমা তৈরি করে আগের মতো লাভ হয় না। তার পরও এ পেশা ছাড়তে পারিনা। এখন তৈরি করা প্রতিমাগুলোতে রং লাগিয়ে সুসজ্জিত করা হচ্ছে।

নন্দীগ্রাম পৌর এলাকার কলেজ পাড়ার গৃহীনি রম্পা রানী বলেন, দুর্গাপূজা উপলক্ষে আমরা প্রতিবছর অনেক ধরনের নাড়ু-বরি তৈরি করি। এর মধ্যে রয়েছে, তিলের নাড়ু, নারিকেলের নাড়ু, দুধের নাড়ু, গঙ্গাজলির নাড়ু, খই, মুড়কি, মুড়ির মোয়া, চানাচুরের মোয়া ও ভেটের খইয়ের মোয়া।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ নন্দীগ্রাম শাখার সভাপতি দুলাল চন্দ্র মহন্ত বলেন, নন্দীগ্রামে এবার ৪৬টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করা হবে। আশা করি প্রতিবছরের মতো এবারও শান্তিপূর্ণভাবে শারদীয় উৎসব সম্পন্ন হবে।

নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। দুর্গাপূজা শান্তিপূর্ণভাবে শেষ করার লক্ষে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সজাগ দৃষ্টি রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিফা নুসরাত বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উদযাপনের লক্ষে ইতিমধ্যে ধর্মীয় ও সামাজিক বন্ধন প্রতিষ্ঠার লক্ষে সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি মণ্ডপের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নন্দীগ্রামে সুন্দরভাবে দুর্গাপূজার কার্যক্রম সম্পন্ন হবে বলে আশা করি।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: