প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শিপন সিকদার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই: মান্না

   
প্রকাশিত: ১১:২৪ অপরাহ্ণ, ১৮ নভেম্বর ২০২২

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, খেলার কথা বলে ক্ষমতাসীনরা। কারণ তাদের এসব বলেই টিকে থাকতে হবে। সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় সাত দলের রাজনৈতিক জোট ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’ এর সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আজ বিরোধী দল যেখানেই সভা ডাকে সেখানেই মানুষের ঢল নামে। মানুষ সাঁতরে, হেটে, ভেলায় চড়ে, সাইকেলে চড়ে, চিড়া মুড়ি নিয়ে চলে আসছে। এরকম চিত্র বাংলাদেশে আগে দেখা যায়নি। মানুষ বাজারে টাকা নিয়ে যায় ব্যাগ ভরে আর সওদা নিয়ে আসে অর্ধেক করে। সরকার সব জিনিজের দাম বাড়িয়েছে। আজকে মাংস খাওয়া, মাছ খাওয়া মানুষ প্রায় ছেড়ে দিয়েছে। অথচ আমরা মাছে-ভাতে বাঙ্গালী ছিলাম। আজকে যারা ক্ষমতায় আছে তারা ভোটের আগে বলেছিল ১০ টাকায় চাল খাওয়াবে। কিন্তু আজকে মোটা চালের দাম কত? চিকন চালের দাম কত? এই জন্য আমি বলি ফোর টোয়েন্টি গর্ভমেন্ট, মিথ্যুক, জনগণকে ভাওতা দিয়েছে। এবং সেই ভাওতাবাজ সরকার এখন ক্ষমতায় আছে।

তিনি আরও বলেন, ক্ষমতাসীন দল ভোটে জিতবে না, ভোট দিতে দিবে না। আপনি যতই প্রতিবাদ করেন আপনার কোন কথা শুনবে না। বরং আপনি সভা করতে যাবেন, আপনাকে সভা করতে দিবে না।

মান্না বলেন, দেশের ২০ টি ব্যাংকের কাছে কোন ডলার নেই এলসি করার জন্য। ভারতের কোন কোন ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংককে এলসি দেয় না। আমরা আরও ২ মাস আগেই বলেছিলাম যে, দেশের রিজার্ভ নেই। তখন আমাদের মারার উপক্রম হয়েছিল। গ্রেপ্তারও করার চেষ্টা হয়েছিল। আমরা বলেছিলাম দেশ শ্রীলঙ্কার দিকে ধাবিত হচ্ছে। মানুষ এখন কোন কিছু ক্রয় করে আরাম বোধ করেন না।

তিনি আরও বলেন, এখন সমাবেশ ডাকলেই মানুষের ঢল নামে। যেখানেই সমাবেশ ডাকা হয় সেখানেই মানুষের ঢল। মানুষ চিড়া, মুড়ি, গুড় নিয়ে নদী সাঁতরিয়ে সমাবেশে যোগ দিচ্ছে। সরকার কোন সমাবেশেই মানুষ আটকাতে পারেনি। সরকার গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকতে চায়।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পাটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহবায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ুম প্রমুখ।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: