প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শ্যামনগরে রান্না করা হরিণের মাংস উদ্ধারে আক্রমণের শিকার নৌ পুলিশ

   
প্রকাশিত: ১১:৩৬ অপরাহ্ণ, ১৯ নভেম্বর ২০২২

জি এম মাছুম বিল্লাহ, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) থেকে: শ্যামনগরে রান্না করা হরিণের মাংস উদ্ধার করতে যেয়ে আক্রমণের শিকার হয়েছে নৌ পুলিশ। শনিবার (১৯ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়নের চুনকুড়ি গ্রামে নৌপুলিশ ও বনবিভাগ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে।

এসময় হরিণের রান্না করা মাংসসহ চুনকুড়ি গ্রামের আনসারের ছেলে সাত্তার গাজী (৪১) কে আটক করে। আটক সাত্তার গাজী বলেন, চুনকুড়ি গ্রামের গনি গাজীর ছেলে সাঈদের কাছ থেকে ১ কেজি হরিণের মাংস ক্রয় করি। সাঈদের কাছে আরো হরিণের মাংস আছে বলে জানান তিনি।

আসামীর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নৌ পুলিশ ও বনবিভাগের একটি দল সাঈদের বাড়িতে অভিযান চালায়। সেখান থেকে সাঈদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করলে সাঈদ কে ছাড়াতে হরিণ শিকার চক্র যৌথ বাহিনীর উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

মুন্সীগঞ্জ নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শিশির ঘোষ হামলার বিষয়টা নিশ্চিত করে বলেন, হরিণ শিকার চক্রের সঙ্ঘবদ্ধ হামলায় নৌ পুলিশের ২ জন সদস্য আহত হয়ে শ্যামনগর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এ সময় তারা যৌথ বাহিনীর ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ভাংচুর করে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার উপরে আক্রমণকারীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

বনবিভাগের কদমতলা ষ্টেশন কর্মকর্তা মো: মোশারাফ হোসেন বলেন, হরিণের রান্না করা মাংসসহ একজন আসামীকে আটক করা হয়েছে। বন আইনে মামলা দিয়ে আগামীকাল জেল হাজতে পাঠানো হবে।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: