প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ভিক্ষা করতে হবে না রানী-আফিয়াদের, পেলেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার

   
প্রকাশিত: ৭:১৬ অপরাহ্ণ, ২৪ নভেম্বর ২০২২

নোয়াখালী পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের মধ্যম করিমপুরের চার ভিক্ষুক পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার। গতকাল বুধবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনের মুজিব চত্বরে ‘ভিক্ষুক পুনর্বাসন ও বিকল্প কর্মসংস্থানের’ আওতায় চার ভিক্ষুককে অটোরিকশা হস্তান্তর করেন জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান।

প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার পেয়ে অশ্রুসিক্ত তারা। এসময় অটোরিকশা উপহার পাওয়া নোয়াখালী পৌরসভার ফকিরপুর এলাকার ভিক্ষুক রৌশন আরা বেগম (৬১) বলেন, আমি অনেক দিন ধরে অসুস্থ। এখন ভিক্ষাও পাই না। প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে আমার খুব খুশি লাগছে। আমি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। ভিক্ষুক রানী বেগম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে অটোরিকশা উপহার দিয়েছেন। আমি আর ভিক্ষা করব না। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করব।

আফিয়া খাতুন (৬০) নামের আরেক ভিক্ষুক গনমাধ্যমে জানান, খুব কষ্টে দিন যায়। মানুষ ভিক্ষা দেয় না। ছেলে-মেয়ে খবর নেয় না। তাই বাধ্য হয়ে হাত পাতি। এখন ডিসি স্যার গাড়ি দিসে। এটার ভাড়া দিয়ে ওষুধ খাইতে পারুম। আমি ভিক্ষুক নই, এখন থেকে রিকশার মালিক। জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান জানান, ভিক্ষুক পুনর্বাসন করা বাংলাদেশ সরকার প্রধান শেখ হাসিনার অঙ্গীকার। তিনি নানান প্রকল্পের মাধ্যমে গৃহহীন ও আশ্রয়হীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই দিয়েছেন। আশা করি, আমরা দ্রুত নোয়াখালীকে ভিক্ষুক মুক্ত করতে পারব।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইসরাত সাদমীন, জেলা সমাজসেবার সহকারি পরিচালক আবুল কাশেম, শহর সমাজসেবা অফিসার মো. আব্দুল হামিদ, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কে এইচ তাসফিকুর রহমান প্রমুখ।

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: