প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

শাহাদাত হোসেন রাকিব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

নির্বাচন কমিশনের বৈঠক বর্জন করেছেন মাহবুব তালুকদার

‘মাহবুব তালুকদারের নাম তো বিএনপি থেকেই এসেছিল’

৩০ আগস্ট, ২০১৮ ১৬:৪৮:৪৯

ছবি: প্রতিনিধি

‘একটা নির্বাচন কমিশনে কখনও কখনও তারা একসাথে বসে দ্বিমত হতেই পারে। এটা যে শেষ তা নয়। এটা নির্বাচন কমিশনের ব্যাপার। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বৈঠক বয়কট করেছেন। আমরা যে সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছিলাম, তার মধ্যে বিভিন্ন দল নাম দিয়েছিল। মাহবুব তালুকদারের নাম তো বিএনপি থেকেই এসেছিল। সুতরাং কে বিএনপি কে আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশনে সেটা আমরা মনে করি না। সবাই নিরপেক্ষ। দক্ষতার ভিত্তিতে তারা এখানে নিযুক্ত হয়েছেন।’

বৃহস্পতিবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে বাংলাদেশে সফররত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী পরিচালক জেমস গুলশেনের নেতৃত্বে আসা একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এ কথা বলেন।

এর আগে বেলা ১১ টায় গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধন নিয়ে কমিশন সভা চলাকালে ইভিএমের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে বৈঠক থেকে বের হয়ে যান নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

এ বিষয়ে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় মন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রাখেন একজন সাংবাদিক।

ওই সাংবাদিক বলেন, ‘আজকে নির্বাচন কমিশনের বৈঠক থেকে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বেরিয়ে গেছেন, বৈঠক বয়কট করেছেন। তিনি ‘নোট অব ডিসেন্ট’ও দিয়েছেন। কোনো টেন্ডার ছাড়াই ইভিএম কেনা হচ্ছে। বিএনপি এবং সুশীল সমাজ বলছে এটি আইন বিরোধী। আপনারা যে কোনো বিতর্ক ছাড়া নির্বাচন করতে চাচ্ছেন, নির্বাচন কমিশন কিন্তু বিতর্কিত করে ফেলছে...।’

জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এটা (ইভিএম) নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার, আমার নয়। ইভিএম পৃথিবীর সব দেশে আছে। আমেরিকার নির্বাচনেও ইভিএম ব্যবহার হয়েছে। তারা (নির্বাচন কমিশন) বলেছে, ১০০ আসনে ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন হবে। এটা নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার। সিলেট এবং রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কয়েকটি কেন্দ্রে ইভিএমের ব্যবহার হয়েছে। কোনো জায়গায় বিএনপি জিতেছে, কোনো জায়গায় আওয়ামী লীগ জিতেছে। নির্বাচন কমিশন যেদিন থেকেই গঠিত হয়েছে, সেদিন থেকেই বিএনপি বা তার জোট নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে।’

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কে কোথায় গিয়ে মিটিং করছে তা নিয়ে আমরা ভাবি না, আমরা বাংলাদেশকে নিয়ে ভাবি। গণতান্ত্রিকভাবে ঐক্য করতেই পারে। কিন্তু নির্বাচন বানচাল করার যদি কেউ ষড়যন্ত্র করে তখন সরকার নিরব হয়ে থাকবে না, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নিরব ভূমিকা পালন করবে না।

আগামী সংসদ নির্বাচন সঠিকভাবেই হবে বলে মনে করেন বর্ষীয়ান এ রাজনীতিবিদ। তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের আগে অনেক কিছু করারই চেষ্টা করা হবে। তবে কোনোটাই সফল হবে না।’

বিডি২৪লাইভ/এসএইচআর/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: