আরেফিন আল ইমরান

ডেস্ক কন্ট্রিবিউটর

মানসিক চাপ কমাতে ব্যায়ামের উপকারিতা

০১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:২৪:১৩

মানসিক চাপ বর্তমানে একটি বিশাল সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছে। ক্যারিয়ারের অনিশ্চয়তা, ভবিষ্যতের ভাবনা, দৈনন্দিন উদ্বেগ-উৎকন্ঠা প্রভৃতি মিলিয়ে মানুষের মাঝে বিপুল পরিমাণ স্ট্রেস জমা হয়। ক্রমাগত এইসব চাপ একত্রিত হয়ে শরীর ও মনের অনেক ক্ষতি করে। এজন্য বিশেষজ্ঞরা শরীর ও মনের সুস্থতা ধরে রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম করার পরামর্শ দেন। মানসিক চাপ কমাতে, চলুন জেনে নেয়া যাক ব্যায়ামের উপকারিতাগুলো।

১. বিষন্নতা কাটাতে: কারও যদি মন খারাপ থাকে তাহলে কিছুক্ষণ ঘাম ঝরানো ব্যায়াম করতে পারেন। কারণ ব্যায়ামের কারণে নিঃসৃত হরমোন মনের চাপ কমাতে সাহায্য করে। মন খারাপ থাকলে কিছুক্ষণ দৌড়ান বা বাইরে হাঁটতে যান। তহলে আগের চেয়ে মন কিছুটা হলেও ভাল লাগবে।

২. আত্নবিশ্বাস বৃদ্ধিতে: অনেক সময় কারো সঙ্গে কথা বলতেই ইচ্ছে হয় না। আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি হলে এমনটা হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিয়মিত ব্যায়াম করলে আত্মবিশ্বাস বাড়ে। তাই এ ধরনের পরিস্থিতি হলে সাঁতার কাটা কিংবা দৌড়ানো খুব ভাল কাজ দেয়।

৩. মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়াতে: আমরা যতক্ষণ কাজ করি ততক্ষণ মস্তিষ্কও সক্রিয় থাকে। তাই নিয়মিত ব্যায়াম করলে মস্তিষ্কের কোষগুলো কার্যকর থাকে এবং সারা শরীরে একটা সংযোগ তৈরি করে। এ কারণে নিয়মিত ব্যায়ামে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ায়।

৪. উদ্বিগ্নতা হ্রাসে: গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত ব্যায়াম উদ্বিগ্নতা কমায়। কোন বিষয়ে দুশ্চিন্তায় থাকলে ৩০ মিনিট ব্যয়াম করুন। তাহলে উদ্বেগ অনেকটা দূর হবে।

৫. জীবনে শৃঙ্খলা তৈরী: নিয়মিত ব্যায়ামে নিজের মধ্যে এক ধরনের শৃঙ্খলা তৈরি হয়। কাজকর্ম ও ব্যস্ততার ভিড়েও নিজেকে গুছিয়ে সামনে এগিয়ে যাবার প্রেরণা সঞ্চারিত হয়।

৬. স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে: শরীরচর্চার মাধ্যমে শরীর থেকে যত ঘাম নিঃসৃত হবে মস্তিষ্ক ততই শক্তিশালী হবে ।কোন বিষয় মনে রাখার ক্ষমতাও এতে বাড়ে। নিয়মিত ব্যায়াম শুধু শিশুদের না বড়দেরও স্মৃতিশক্তি বাড়ায়। সূত্র: হেলদিবিল্ডার্জড

বিডি২৪লাইভ/এএআই/আরআই

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: