প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

মোঃ সাইফুল ইসলাম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল

সাদা পোশাকে ‘গ্রেফতার’ বিধানে নেই

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:১২:০০

ছবি: প্রতিনিধি

গণফোরাম সভাপতি ও সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন বলেছেন, কালকেও দেখেছি ছাত্রদের ধরপাকড় করা হয়েছে। সব চেয়ে উদ্বেগের কারণ হচ্ছে সাদা পোশাক পরে লোক জনকে ধরা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে গণফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ উদ্বেগের কথা জানান।

ড. কামাল বলেন, ‘আমরা জানি না কারা এভাবে ধরপাকড় করছে বা চালাচ্ছে। অন্যদিকে আবার আইন সংস্থাগুলো আটকের বিষয়গুলো অস্বীকারও করছে।’

‘আটকদের তিন-চার দিন পরে কোর্টে এনে রিমান্ডও চাওয়া হচ্ছে। এই ধরনের ঘটনা তো ঘটার কথা নয়। সংবিধানে লেখা আছে কাউকে আটক করতে হলে ওয়ারেন্ট দেখাতে হবে। এমনকি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে হাজির করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এগুলো আমাদের সর্বোচ্চ আদালতে নির্দেশ দেওয়া আছে। কাউকে আটক করতে হলে এ শর্তগুলো পালন করতে হবে। আমরা যেগুলো এখন লক্ষ্য করছি, রীতিমতো এ আইনগুলোকে অমান্য করা হচ্ছে। সাদাপোশাক পড়ে কাউকে গ্রেফতার করা আইনের বিধানে নেই।’

জাতীয় ঐক্য বিষয়ে তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্য কিংবা অন্য কোনো দলের সাথে ঐক্য হোক না কেন জামায়াতে ইসলামী থাকলে সেই ঐক্যজোটে থাকবেন না তিনি।

বিএনপি জামায়াতকে ছাড়া জোট করবে না, আপনারা জামায়াতের সাথে সেই জোটে থাকবেন কিনা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অন্য কেউ গেলে যেতে পারে, আমার দল (গণফোরাম) যাবে না।

তিনি আরও বলেন, আমি সারা জীবন জামায়াতকে সমর্থন করিনি, এখন করবো কেন? বিএনপির সাথে জামায়াত থাকলে আমরা তাদের সাথে নেই। এছাড়া আমি যতদূর জানি জামায়াত কোনো রাজনৈতিক দল না। তাদের নিবন্ধন বাতিল হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে গণফোরাম এবং ঐক্য প্রক্রিয়ার শীর্ষ নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: