দুদকের মামলায় ২৮ বছর সাজা পেল পেশকার

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৯:৩১:৪৫

ছবি: সংগৃহীত

ফরিদপুরে দুদকের করা এক মামলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার ও তার স্ত্রীকে বিভিন্ন মেয়াদে অর্থদণ্ডসহ কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পেশকারকে ২৮ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৮৯ লাখ ৯৪ হাজার ২৪ টাকা আর্থিক দণ্ড এবং তার স্ত্রীকে ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও নগদ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) ফরিদপুরের বিশেষ জজ আদালতের বিচারিক হাকিম মতিয়ার রহমান এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফরিদপুর দুদকের আইনজীবী মজিবর রহমান বলেন, ২০১০ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের ২৬ মে পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে ইমাম উদ্দিন তার স্ত্রী অফিস সহকারী কমলা আক্তারের সহায়তায় আদালতের অর্থদণ্ড বাবদ প্রাপ্ত ৮৯ লাখ ৯৪ হাজার ২৪ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন।

আর এ অভিযোগে ২০১৫ সালের ১৮ জুন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী হাকিম জিনিয়া জিন্নাত বাদী হয়ে পালং থানায় সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা করেন। পরে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় ফরিদপুরের সহকারী পরিচালক হাফিজুর ইসলাম অভিযোগ তদন্ত করে ইমাম উদ্দিন ও কমলা আক্তারকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, মো. ইমাম উদ্দিন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের জিএম শাখার কর্মচারী ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার। আর স্ত্রী শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত।

এদিকে রায় ঘোষণার সময় মো. ইমাম উদ্দিন ও কমলা আক্তার আদালতে হাজির ছিলেন। রায়ের পর তাদের দু’জনকে সরাসরি কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: