ওয়ালটন বধির ক্রিকেটের শিরোপা পাকিস্তানের

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:১১:৪৪

ছবি: সংগৃহীত

প্রাথমিক পর্বে পাকিস্তানের সঙ্গে দুবারের দেখায় দুবারই হেরেছিল বাংলাদেশ। ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে প্রতিশোধ নেওয়ার পাশাপাশি শিরোপা জয়ের সুযোগ ছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু পারল না বাংলাদেশ। ফাইনালে বাংলাদেশকে ২৫ রানে হারিয়ে ওয়ালটন ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি বধির ক্রিকেটের শিরোপা জিতেছে পাকিস্তান।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুক্রবার আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১২৯ রান করেছিল পাকিস্তান। জবাবে ৫ উইকেট হারিয়ে ১০৫ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ।

টস জিতে বোলিং নিয়ে বাংলাদেশের শুরুটা অবশ্য দারুণ হয়েছিল। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই পাকিস্তান শিবিরে আঘাত হানেন রিয়াদ। পাকিস্তান ১ রানেই হারায় ১ উইকেট।

একটা পর্যায়ে ৫৬ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে একশর আগেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। সেখান থেকে পাকিস্তান একশ ছাড়ানো পুঁজি পায় মূলত ইজাজ আহমেদের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে। অষ্টম উইকেটে এন আরশাদের (২১) সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৭৩ রানের জুটি গড়ার পথে ৩৪ বলে ৩ চার ও ৫ ছক্কায় ৫৯ রানে অপরাজিত ছিলেন ইজাজ।

১২ রানে ২ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সেরা বোলার দ্বীপ। রিয়াদ ১২ রানে নেন একটি উইকেট।

লক্ষ্য তাড়ায় বাংলাদেশের শুরুটা ভালোই হয়েছিল। ইমরান ও সোহেল ৭.৫ ওভারে গড়েছিলেন ৪৬ রানের উদ্বোধনী জুটি। কিন্তু দুই ওপেনারের বিদায়ের পর মিডল অর্ডারে কেউ দায়িত্ব নিতে পারেননি। বাংলাদেশও তাই লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেনি।

ইনিংস সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন সোহেল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ রান আসে আরেক ওপেনার ইমরানের ব্যাট থেকে। আকিব ১৬ ও মনির করেন ১৪ রান।

ম্যাচসেরা হয়েছেন পাকিস্তানের এজাজ আহমেদ। আর টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার জিতেছেন পাকিস্তানেরই আরেক খেলোয়াড় তানভীর।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুবাদে পাকিস্তান দল ট্রফিসহ পেয়েছে ৫০ হাজার টাকা। চ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়কের হাতে ট্রফি তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (পলিসি, এইচআরএম অ্যান্ড অ্যাডমিন) এসএম জাহিদ হাসান।

আর রানার্সআপ বাংলাদেশ দল ট্রফির সঙ্গে পেয়েছে ২৫ হাজার টাকা। রানার্সআপ দলের অধিনায়কের হাতে ট্রফি তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম।

স্বাগতিক বাংলাদেশ ,পাকিস্তান ও ভারতকে নিয়ে গত ১৪ সেপ্টেম্বর শুরু হয়েছিল এই টুর্নামেন্ট। ডাবল লিগ পদ্ধতিতে ফাইনালসহ টুর্নামেন্টে ম্যাচ হয়েছে মতো সাতটি।

বিডি২৪লাইভ/এমএম/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: