ইয়ানুর রহমান

যশোর প্রতিনিধি

যশোর ৬টি আসন

মা-ছেলে, স্বামী-স্ত্রীসহ ধানের শীষের মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪১

২১ নভেম্বর, ২০১৮ ০৪:০০:০০

ছবি: প্রতিনিধি

যশোরের ছয়টি আসন থেকে বিএনপি ৪১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। দুইটি সংসদীয় আসনে নির্বাচন করতে মা-ছেলে ও স্বামী-স্ত্রী মনোনয়ন প্রত্যাশী। এর মধ্যে মণিরামপুরে জাহানারা বেগম ও তার ছেলে মুনির আহম্মেদ বাচ্চু এবং বাঘারপাড়ায় টিএস আইয়ুব ও তার স্ত্রী তানিয়া রহমান সুমী বিএনপির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে গত ১২ নভেম্বর থেকে শুরু হয় বিএনপির মনোনয়নপত্র বিতরণ। আর শেষ হয় গত ১৬ নভেম্বর। এই সময়ে যশোরের ৪১ জন বিএনপি নেতা ধানের শীষের জন্য আবেদন করেছেন। যার মধ্যে দুইটি আসনে একই পরিবারের একাধিক ব্যক্তিও আছেন। যশোর-৪ (বাঘারপাড়া-অভয়নগর) আসনে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার টিএস আইয়ুব ও তার স্ত্রী তানিয়া রহমান সুমী ধানের শীষ প্রতীক চেয়ে আবেদন করেছেন।

একই পরিবার থেকে বিএনপির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন যশোর-৫ আসনেও। এখান থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে চান সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত আফসার আহমেদ সিদ্দিকীর স্ত্রী জাহানারা বেগম ও তার ছেলে যশোর নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুনির আহম্মেদ সিদ্দিকী বাচ্চু।

স্বামী-স্ত্রী ও মা-ছেলের মনোনয়ন সংগ্রহের কথা স্বীকার করে যশোর জেলা বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খোকন বলেন, সোমবার যশোরর মনোনয়ন প্রত্যাশীরা সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তবে যশোর-৪ আসন থেকে টিএস আইয়ুবের স্ত্রী তানিয়া রহমান সুমী সাক্ষাৎকার দিতে আসেননি।

যশোর-১ (শার্শা) আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিয়েছেন বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক মফিকুল হাসান তৃপ্তি, শার্শা উপজেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুজ্জামান মধু, সাধারণ সম্পাদক হাসান জহির, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সম্পাদক আলহাজ মহসীন কবীর, যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা নূরুজ্জামান লিটন ও বিএনপি নেতা ওসমান গণি।

যশোর-২ (ঝিকরগাছা-চৌগাছা) আসনে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহম্মদ ইসহক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী মুনিরুল হুদা, যশোর চেম্বারের সাবেক সভাপতি আলহাজ মিজানুর রহমান খান, ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান সাবেরা নাজমুল মুন্নী, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোর্ত্তজা এলাহী টিপু, চৌগাছা বিএনপির সভাপতি জহুরুল ইসলাম, চৌগাছা যুবদলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম ও ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম।

যশোর-৩ (সদর) আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, জেলা বিএনপির সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু ও যশোর নগর বিএনপির সভাপতি মারুফুল ইসলাম।

যশোর-৪ (বাঘারপাড়া-অভয়নগর) আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার টি এস আইয়ুব ও তার স্ত্রী তানিয়া রহমান সুমী, বাঘারপাড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সেক্রেটারি আবু তাহের সিদ্দিকী, অভয়নগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফারাজি মতিয়ার রহমান, মেজর (অব.) কোহিনূর আলম নূর, যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা নূরে আলম সোহাগ।

যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনে মণিরামপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট শহীদ ইকবাল, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মুছা, সহ-আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ গফুর, সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত আফসার আহমেদ সিদ্দিকীর স্ত্রী জাহানারা বেগম, যশোর নগর বিএনপির সেক্রেটারি মুনীর আহম্মেদ সিদ্দিকী বাচ্চু, জেলা বিএনপির স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. মেজবাহ উর রহমান, সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম গোলাম মোস্তফা তাজ, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা ইফতেখার সেলিম অগ্নি, জিয়া পরিষদের প্রকৌশলী শরিফুজ্জামান খান ও ফারুক হোসেন।

যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন দলের কেন্দ্রীয় নেতা ও উপজেলা কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, কেন্দ্রীয় সহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অমলেন্দু দাস অপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আবু বকর আবু, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুস সামাদ বিশ্বাস, সেক্রেটারি আলাউদ্দিন আলা, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মশিয়ার রহমান ও অ্যাডভোকেট নূরুজ্জামান তপন।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: