শিক্ষার্থীকে পেটালো ছাত্রলীগ

০৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:৪৫:৩২

ছবি: প্রতিনিধি

তুচ্ছ ঘটনায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। বুধবার রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ শামসুজ্জোহা হলের অতিথি কক্ষে এ মারধরের ঘটনা ঘটে। মারধরে আহত তারিক হাসান বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যব্যবস্থা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি শহীদ শামসুজ্জোহা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।

বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (রামেক) ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যব্যবস্থা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইমামুল ও একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তারিক হাসানের মধ্যে টাকা ধার দেওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পরে ইমামুল বিষয়টি শামসুজ্জোহা হল শাখা ছাত্রলীগকে জানায়।

তারিককে হলের অতিথি কক্ষে ডোকে শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গুফরান গাজীসহ কয়েকজন নেতাকর্মী মিলে বেধড়ক মারধর করে। মারধরের এক পর্যায়ে মোবাইল দিয়ে তারিকের মাথায় আঘাত করেন গুফরান গাজী। এতে তারিকের মাথা ফেটে যায়। ঘটনার পর অতিথি কক্ষে প্রবেশ করলে কক্ষের আসবাবপত্র ও মেঝেতে তারিকের রক্ত পড়ে থাকতে দেখা যায়।

অভিযুক্ত রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গুফরান গাজী বলেন, ‘আমি নিজে মারধর করিনি। তারা নিজেরা নিজেদের মধ্যে মারধর করেছে। মারামারিতে তাদের একজনের মাথা ফেটে যায়।’এ বিষয়ে শহীদ শামসুজ্জোহা হলের প্রাধ্যক্ষ ড. জুলকার নায়েন বলেন, হলে মারধরের ঘটনার কথা শুনেছি। তবে বিষয়টি এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত না। বিষয়টি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: