সোহেল রানা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পিটিয়ে হত্যা ২ 

০৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:৩৪:১৮

ছবি: সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার পূর্বকোদালিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২ জনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এরা হলেন পশু চিকিৎসক কাউছার হোসেন(২৩) ও তার বড় ভাই মিলটন (২৮)। নিহতরা ওই গ্রামের আন্তাজ আলীর ছেলে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার দায়ে খাষপুখুরিয়া ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর শিরিন সুলতানাকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে ইউপি সদস্য শিরিনের বাড়িতে এ মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থলেই পশু চিকিৎসক কাউছার হোসেন নিহত হয়। আর তার ভাই মিলটনকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শনিবার (৮ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেও মারা যায়।

এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। অপর দিকে নিহতদের স্বজনদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় ব্যাপক পুলিশ মতায়ন করা হয়েছে।

নিহতদের চাচা জয়নাল আবেদীন জানান, নিহতদের বাবা আন্তাজ আলীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে মহিলা মেম্বার শিরিন সুলতানার স্বামী রফিকুল ইসলাম বকুলের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে বাড়িতে দাওয়াতের কথা বলে তাদের সবাইকে ডেকে নিয়ে যায়। জমিজমার বিষয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মারপিটের ঘটনা শুরু হয়। এ সময়ে কাউছারকে পিটিয়ে ঘটনাস্থলেই নির্মম ভাবে হত্যা করে।

তার বড়ভাই মিলটনকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেও মারা যায়। এ ঘটনায় নিহতর মা আয়েতুন নেছাসহ আরো ২ জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

চৌহালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম এ ঘটনায় সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় নিহতের মা আয়েতুন নেছা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

রাতেই এ মামলার এজাহার ভুক্ত আসামী সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যা শিরিন সুলতানাকে আটক করা হয়েছে। অন্য আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া নিহত কাউছারের লাশ ময়না তদন্তের জন্যে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সোহেল রানা
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: