সোলায়মান বাবু

সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি

সরিষাবাড়ীতে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৪:৫৩:৫২

ছবি: প্রতিনিধি

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে নানা কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে বুধবার (১২ ডিসেম্বর) হানাদার মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। পৌরসভার বাউসী পপুলার মোড়ে স্থাপিত মুক্তিযোদ্ধা স্মরণীতে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যে সরিষাবাড়ী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যৌথ উদোগে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন, বীর শহীদদের প্রতি মুক্তিযুদ্ধ স্বরনীতে শ্রদ্ধা নিবেদন, র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে বুধবার সকালে উপজেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামীলীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহনে মুক্তিযোদ্ধা স্বরণী চত্বর থেকে শোভাযাত্রাটি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মাঠে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সরিষাবাড়ী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মোফাজ্জল হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা, সাধারন সম্পাদক উপাধ্যক্ষ হারুন অর রশীদ, জামালপুর জেলা আ’লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ডাঃ মুরাদ হাসান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাংগঠনিক কমান্ডার আব্দুল হামিদ, সরিষাবাড়ী অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ছরোয়ার জাহান, পৌর মেয়র মোঃ রুকনুজ্জামান রুকন, জেলা আওয়ামীলীগের উপদপ্তর সম্পাদক এ্যাডভোকেট জহুরুল ইসলাম মানিক, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি মোঃ ফরিদুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সরিষাবাড়ীর বিভিন্ন এলাকায় পাক হানাদাররা নিরস্ত্র মানুষের উপর বর্বোরচিত হামলার কথা স্মরণ করে বলেন তাদের নগ্ন হামলায় এলাকার সাধারণ মানুষের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়। ১৯৭১ সালের এই দিনে ১৪৬ জন পাক হানাদারের আত্মসমর্পনের মধ্যেদিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধারা সরিষাবাড়ীকে হানাদার মুক্ত করেন।

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: