আব্দুল লতিফ রঞ্জু

পাবনা প্রতিনিধি

পতাকা উৎসবে এক হাজার পতাকা বিতরণ

১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২১:৫৩:৫৭

ছবি: প্রতিনিধি

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সর্বস্তরে পৌছে দিতে এবং নতুন প্রজন্ম কে উদ্বুদ্ধ করতে এবং জাতীয় পতাকার প্রতি সম্মান প্রদর্শনের লক্ষ্যে পাবনায় প্রথমবারের মতো পতাকা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাবনা জেলা পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পাঠশালা যৌথভাবে এই পতাকা উৎসবের আয়োজন করে।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় পুলিশ লাইনস অডিটরিয়ামে অয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রথমে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

পাবনার পুলিশ সুপার সুপার শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমান হাবিব, পাবনা চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আলী মর্তূজা বিশ্বাস সনি, রানা গ্রুপের চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস রানা, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. প্রীতম কুমার দাস, মাছরাঙা টেলিভিশনের উত্তরাঞ্চল ব্যুরো চীফ উৎপল মির্জা, পাঠশালার সভাপতি স্বাধীন মজুমদার।

বক্তারা বলেন, জাতীয় পতাকা বাংলাদেশের মানুষের অস্তিত্বের ঠিকানা। জাতীয় পতাকার যথাযথ সম্মান সবসময় দেখাতে হবে। শুধু পতাকা উড়ানোর মধ্যে নয়, জাতীয় পতাকাকে বুকে লালন করতে হবে। জাতীয় পতাকার যেন কোনো অসম্মান বা অবমাননা না হয় সেদিকে সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান বক্তারা।
অনুষ্ঠানে পাবনার বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও সামাজিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের মাঝে এক হাজার জাতীয় পতাকা ও এক হাজার ব্যাজ বিতরণ করা হয়।

পরে উপস্থিত সবাই মিলে জাতীয় সঙ্গীতে অংশ নেন। শেষে জাতীয় পতাকা হাতে সবার অংশগ্রহণে একটি র‌্যালী শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতা করে মাসপো গ্রুপ ও রানা গ্রুপ।

পতাকা উৎসবে অতিথিরা বলেন, এই জাতীয় পতাকা অর্জন করেছি লাখো শহীদের রক্ত এবং স্বাধীনতা সংগ্রামের মধ্য দিয়ে। পতাকা টানালে এর যথাযথ সম্মান প্রর্দশন করতে হবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তে রঞ্জিত আমাদের এই মানচিত্র আর তার বিনিময়ে পেয়েছি লাল সবুজের পতাকা। তাই প্রত্যেকটা দিবসে আমার সকলকে জাতীয় পতাকা উতোলন করা উচিৎ। তবে সেই পতাকার সম্মান প্রর্দশন করে।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: