উষ্ণতায় বাঁচুক ফুটপাতবাসী

অসহায় শীতার্তদের পাশে ‘বিডি আর্ত সেবা ফাউন্ডেশন’

১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৫৪:০০

ছবি : প্রতিনিধি

উষ্ণতায় বাঁচুক ফুটপাতবাসী। শীতবস্ত্র বিতরণ (সিজন-২) উষ্ণতা ছড়িয়ে যাক ফুটপাতের হৃদয়ে-হৃদয়ে। এই স্লোগানকে সামনে রেখে বিভিন্ন স্পট ঘুরে শীত বস্ত্র বিতরণ করেছে কওমি তরুণদের সংগঠন ‘বিডি আর্ত সেবা ফাউন্ডেশন’।

রাত এগারটা। পথঘাট একেবারে ফাঁকা। মাঝে মাঝে শোঁ শোঁ শব্দে ছুটে যাচ্ছে দু-একটা গাড়ি। মানুষ ফিরে গেছে নীড়ে। কুয়াশার চাদরে ঢেকে গেছে প্রকৃতি।

কাঁথা-কম্বল মুড়িয়ে আলস্য ঘুমে ডুবে গেছে নগরবাসী। তখন নীড়হারা পথের মানুষগুলো শুধু কাতরাচ্ছে শীতে! ছেঁড়া কম্বলে নুড়িমড়ি হয়ে কোন মতে শীত নিবারণের চেষ্টা চালাচ্ছে তারা। আর এমন সব মানুষের পাশে দাঁড়ালো বেশ কজন কওমি তরুণ।

তারা গড়ে তুলেছে ‘বিডি আর্ত সেবা ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সেবামূলক সংগঠন।

এ বিষয়ে সংগঠনটির সেক্রেটারি জুনায়েদ আহসানের সাথে কথা বলে জানা গেল শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণে তারা নিয়েছে এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ।

জানা যায়, গতকাল ১৪ই ডিসেম্বর রাত এগারটায় ঢাবির টিএসি এলাকা থেকে শীতার্ত পথের মানুষদের মাঝে কম্বল বিতরণ শুরু করেন তারা। সারা রাত ঘুরে ঘুরে রাজধানীর শাহবাগ, হাইকোর্ট, কারওয়ান বাজার, বিজয় সরণি, হাতিরঝিল, কমলাপুর, মতিঝিল ও পল্টনের বেশ কয়েকটি স্পটে কম্বল বিতরণ করেছেন তারা।

এতো রাতে ঘুরে ঘুরে কম্বল বিতরণ কেন? জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘আমরা প্রকৃত অসহায় মানুষদের হাতে শীতবস্ত্র তুলে দিতে চাই। এজন্য নিজেরা কষ্ট করেই এভাবে তুলে দিয়েছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলো সংগঠনের সদস্য সাজ্জাদুর রহমান, কাজি হাকিম, যোবায়ের, ইমরান, ফেরদাউস, জাহিদ, রবিউল, আহমাদ সানি, জহির, জাহাঙ্গির, ইব্রহিম রনি, বিভিন্ন সংগঠন থেকে আগত আবু হানিফ, রাকিবুল ইসলাম, বিএম শাহিন প্রমুখ।

জানা যায়, আরও ৫ জেলায় শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে। বিডি আর্তসেবা ফাউন্ডেশনের সাথে জড়িতরা সবাই ঢাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়ণরত কওমি মাদ্রাসার ছাত্র। সেবার মানসিকতা নিয়ে ২০১৭ সালে যাত্রা করা এ সংগঠনটি কাজ করে যাচ্ছে।

ব্লাড গ্রুপিং, বিণামূল্যে রক্তদান, বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ, শীতবস্ত্র বিতরণ, পথশিশুদের জন্য পুষ্পমেলা ছাড়াও যেকোনো দুর্যোগে ছুটে যাচ্ছেন তারা।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: