প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

আরমান হোসেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

সৈয়দ আশরাফ ও আনিসুল হকের আসনে ভোটের তারিখ ঘোষণা

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৫২:১১

ছবি : ইন্টারনেট

কমিশন সভা শেষে কিশোরগঞ্জ-১ শূন্য আসন ও ঢাকা উত্তরের মেয়র পদের শূন্য পদে ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে এবং উত্তর ও দক্ষিণের ৩৬টি ওয়ার্ডে নতুন করে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের শুন্য আসনে ও আনিসুল হকের শূন্য মেয়র পদে ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোটের তফসিল ঘাষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) কমিশন সভা নির্বাচন ভবনে শেষে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ তফসিল ঘোষনা করেন।

কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সাধারণ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার শেষ সময় ৩১ জানুয়ারি, বাছাই ৩ ফেব্রুয়ারি ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ১০ ফেব্রুয়ারি । ভোট ২৮ ফেব্রুয়ারি ।

ইসি সচিব জানান, সৈয়দ আশরাফ নির্বাচিত হয়ে গেজেট হওয়ার পর শপথ না করায় ওই আসনে সাধারণ নির্বাচন হচ্ছে। আসনটি শূন্য করে গেজেট প্রকাশের কোনো দরকার নেই।

সেক্ষেত্রে এ আসনে আগ্রহীদের নির্ধারিত সময়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে। ৩০ ডিসেম্বরের ভোটের সময় যারা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তারাও প্রার্থী হতে চাইলে এবার মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেন।

ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গত ৩ জানুয়ারি থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে মারা যান সৈয়দ আশরাফ।

জানাযায়, দেশে না থেকেও একাদশ সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ সদর ও হোসেনপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত কিশোরগঞ্জ-১ আসনে নৌকা প্রতীকে জয়ী হন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফ। ব্যাংককে চিকিৎসাধীন থাকায় সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে পারেননি তিনি।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম তার আসনের অবস্থা জানিয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেওয়ার কথা গত মঙ্গলবার জানিয়েছিলেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

ডিএনসিসি নির্বাচন: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ নির্বাচন এবং উত্তর ও দক্ষিণের ৩৬টি ওয়ার্ডে সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলরের ভোট ২৮ ফেব্রুয়ারি হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার শেষ সময় ৩০ জানুয়ারি, বাছাই ২ ফেব্রুয়ারি ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ৯ ফেব্রুয়ারি ।

২০১৭ সালে আদালতের স্থগিতাদেশের আগে যারা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তাদেরও নতুন করে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে বলে জানান ইসি সচিব।

সচিব জানান, ঢাকার এ নির্বাচনে যারা প্রার্থী হয়েছিলেন তাদের জামানাতের টাকা ফেরত দেওয়া হবে; এবার নতুন তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। এ জন্য নির্ধারিত সময়ে আগ্রহীদের মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে ।এ নির্বাচনে আগের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা বহাল রয়েছে।

আনিসুল হকের মৃত্যুতে শূন্য মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচনে ২০১৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোটের দিন রেখে তফসিল দিয়েছিল ইসি।

কিন্তু ওয়ার্ড সীমানা নিয়ে রিট আবেদনে রুল হওয়ার পর আটকে গিয়েছিল এই নির্বাচন। আদালত গত বুধবার সেই রুল খারিজ করে দেওয়ায় ভোটের পথ খুলেছে।

ইসি কর্মকর্তরা জানান, উত্তরের ৫৪ ওয়ার্ডে ভোটার ২৯ লাখ ৪৮ হাজার ৫১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫,২২,৭২৬ ও নারী ১৪,২৫,৭৮৪। ভোট কেন্দ্র ১৩৪৯, ভোটকক্ষ ৭,৫১৬।

উত্তরের নতুন ১৮ ওয়ার্ডে ভোটার ৫,৭১,৬৮৪ (পুরুষ ২,৭৯,০৩৫ ও নারী ২,৮২,৬৪৯)।

দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডে ভোটার ৪,৭৭,৫১০ (পুরুষ ২,৪৫,৪১৬ ও নারী ২,৩২,০৯৪); কেন্দ্র ২৩৩ ও ভোটকক্ষ ১২৪০।

উত্তরের মেয়র পদে উপ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ইসির যুগ্মসচিব (চলতি দায়িত্ব) আবুল কাসেম ও ১২ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা রয়েছে।

দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডের জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রকিবউদ্দিন মন্ডল ও ৬ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: