হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৮:২৯:০০

ছবি : ইন্টারনেট থেকে

পাকিস্তান সফরে আসায় সৌদি যুবরাজকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশটির তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ তথা হিজড়ারা। এ সময় হজ ও ওমরাহ পালনে হিজড়াদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা।

দুই দিনের সফরে বর্তমানে পাকিস্তানে রয়েছেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় পাকিস্তান পৌঁছেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। এই সফরকে ঘিরে সমাবেশের আয়োজন করে দেশটির তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা। হিজড়াদের ভিসা নিষেধাজ্ঞা বাতিল করতে বিন সালমানকে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান তারা।

এর মধ্যেই পাকিস্তানের সঙ্গে দুই হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে সৌদি। সৌদির সঙ্গে বিশাল অংকের এই চুক্তি দেশটির ভঙ্গুর অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দু’দেশের মধ্যে যেসব চুক্তি স্বাক্ষর হচ্ছে তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বন্দর গোধারে একটি তেল শোধনাগার নির্মাণসহ ৮শ কোটি ডলারের একটি চুক্তি রয়েছে।

এ ছাড়া বিদ্যুৎ, পেট্রোকেমিকেল, খনিজ খাতসহ বিভিন্ন বিষয়ে চুক্তি ও সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষর করেছে দু’দেশ।
এই চুক্তি সম্পর্কে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, এই বিনিয়োগ হলো প্রথম দফার। আর অবশ্যই এটা প্রতি মাসে এবং প্রতি বছরে বৃদ্ধি পাবে। এর ফলে উভয় দেশই সুবিধা পাবে।

বিশ্বজুড়ে এমবিএস নামেই পরিচিত ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। রোববার পাকিস্তানে তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়। সৌদি আরবের এই সহায়তার জন্য দীর্ঘদিনের মিত্র দেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, পাকিস্তান এবং সৌদির মধ্যে বর্তমান সম্পর্ক এমন একটি পর্যায়ে পৌঁছেছে যা আগে কখনই ছিল না। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করার পর এ পর্যন্ত দু'বার সৌদিতে সফর করেছেন ইমরান খান।

প্রসঙ্গত, সৌদির আইন অনুযায়ী শুধুমাত্র পুরুষ এবং নারীরা হজ এবং ওমরাহ ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এর বাইরে তৃতীয় লিঙ্গের আবেদনের সুযোগ নেই।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: