সম্পাদনা: শাহরিয়ার আলম

ডেস্ক এডিটর

কাশ্মীর হামলা নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১০:১৪:৫৯

ছবি: ইন্টারনেট

ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার ঘটনাকে ভয়াবহ বলে ব্যাখ্যা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, ঘটনা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জেনে উপযুক্ত সময় এলে এর প্রতিক্রিয়া দিবেন বলে জানান।

চলতি মাসের বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গী হামলায় ভারতের বিশেষ বাহিনীর (সিআরপিএফ) ৪৪ জন জওয়ান নিহতের ঘটনার ভারতজুড়ে নেমে আসে শোকের ছাঁয়া। কাশ্মীরের এ হামলা ইতিহাসে সবচেয়ে বড় হামলা। এদিকে এ ঘটনার পর স্বাভাবিক ভাবেই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

কাশ্মীরে এ হামলা সম্পর্কে হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সুসম্পর্ক হলে সবদিক থেকেই ভাল হবে। তিনি বলেন, ঘটনাটি আমি দেখেছি। এটি একটি ভয়াবহ ব্যাপার। এ নিয়ে আমার কাছে অনেক রিপোর্টও জমা পড়েছে। উপযুক্ত সময় এলে প্রতিক্রিয়া দেব। কিন্তু ভারত এবং পাকিস্তানের সম্পর্ক যদি ভাল হয় তাহলে তা হবে অনেক ভাল ব্যাপার।

এদিকে এ জঙ্গি হামলা নিয়ে ট্রাম্প এখন মুখ খুললেও তাঁর প্রশাসনের তরফে আগেই কড়া বার্তা এসে পৌঁছেছে।

মার্কিন মুখ্য নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বল্টন ভারতের মুখ্য নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে বলেছেন, ভারতের আত্মরক্ষার অধিকার আছে। পাশাপাশি পাকিস্তানের প্রতি তাঁরা যে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন সেটাও জানান জন। হামলার পর থেকেই আমেরিকা বলে আসছে সন্ত্রাসবাদকে মদত দেওয়া বন্ধ করুক পাকিস্তান।

তবে জনের বক্তব্য প্রকাশিত হওয়ার আগে হোয়াইট হাউজের স্টেট সেক্রেটারি মাইক পম্পেও জানান সন্ত্রাসবাদকে শেষ করতে পাকিস্তানকে উদ্যোগ নিতে হবে। টুইটারে মাইক লেখেন, সন্ত্রাস মোকাবিলায় আমরা ভারতের পাশে আছি। সন্ত্রাসবাদীরা যাতে পাকিস্তানের মাটিকে ব্যবহার না করতে পারে তার ব্যবস্থা তাদেরকেই করতে হবে।

আন্তর্জাতিক চাপের মুখে প্রতিক্রিয়া দিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, ভারত প্রমাণ ছাড়াই পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করছে। ভারতে নির্বাচন সামনে বলেই এভাবে পাকিস্তানকে দোষ দেওয়া হচ্ছে বলে তাঁর মত। পাশাপাশি ভারত হামলা করলেও পাকিস্তানও যে জবাব দেবে সেটা পরিষ্কার করে জানিয়েছেন ইমরান খান।

বিডি২৪লাইভ/এসএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: