চরম প্রত্যাঘাত

পাকিস্তানের দিকে যাওয়া সমস্ত নদীর গতি বদলে দিচ্ছে ভারত সরকার!

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৪৫:৫৬

ছবি: ইন্টারনেট

পুলওয়ামার ঘটনার পর থেকে বদলা নেওয়ার দাবিতে ফুঁসছে গোটা দেশ। শুধু দেশবাসীই নয়, শহিদের রক্ত যে বিফলে যাবে না সেই ইঙ্গিত ইতিমধ্যে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দফায় দফায় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সহ বাহিনীর সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন রাজনাথ সিং।

শুধু সামরিক দিক থেকেই নয়, কূটনৈতিকভাবেও পাকিস্তানকে জবাব দিতে ছক কষছে ভারত। কী ভাবে আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করা যায় তা নিয়ে উচ্চ-পর্যায়ের বৈঠক করছেন রাজনাথ। ইতিমধ্যে সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশ বা মোস্ট ফেভারড নেশনস-এর তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানকে। ফলে পাকিস্তানি আমদানিকৃত পণ্যের শুল্ক বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০০ শতাংশ। পাকিস্তানে চা, টমেটো রফতানি বন্ধ করছে ভারত।

এখানেই শেষ ন, পাকিস্তানকে সবদিক থেকে শেষ করে দিতে উঠে পড়েছে ভারত। এবার তীব্র জল সংকটে যাতে পাকিস্তান ভোগে সেজন্যে চরম ব্যবস্থা নিতে চলেছে ভারত।

যে তিনটি নদী ভারত থেকে পাকিস্তানের দিকে বয়ে চলে। ওই তিনটি নদীর জল কার্যত আটকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আজ বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশে ৮,৫৩০ কোটি টাকার প্রকল্পের সূচনা করতে গিয়ে নিতিন গডকড়ী বলেন,‘পাকিস্তানের দিকে বয়ে গিয়েছে তিনটি নদী। ওই তিনটি নদীর জল এবার যমুনাতে ফেলার প্রক্রিয়া চলছে। ফলে যমুনা নদীতে জলের পরিমাণ আরও বেড়ে যাবে।’

জানা গিয়েছে, তিনটি নদীর জল খালের মাধ্যমে ফেলা হবে যমুনায়। বাগপতে যমুনা নদীতে তৈরি হবে বন্দর। ওই বন্দর দিয়ে বাংলাদেশ ও মায়ানমারে পাঠানো হবে চিনি। তিনটি নদীর সঙ্গে যমুনাকে জোড়ার ফলে নতুন জলপথ তৈরি হবে বলে মনে করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

শুধু তাই নয়, পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে কেন্দ্রীয় এই মন্ত্রী জানান, ভারত পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও জল শেয়ার করবে না। যে সমস্ত নদী পাকিস্তানের দিকে গিয়েছে সেগুলির পথও বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। আর সেই পঞ্জাব এবং জম্মু-কাশ্মীরের মানুষের মুখে তুলে দেওয়া হবে বলে সোশ্যাল মিডিয়াতে জানিয়েছেন নিতিন গড়কড়ী। মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে নিশ্চিতভাবে জলসংকট তৈরি হবে পাকিস্তানে।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: