প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

সালেহ আহমেদের শুরু থেকে শেষ

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ১৬:৩২:০২

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

নাটকের জনপ্রিয় মুখ সালেহ আহমেদ দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে অসুখে ভুগে বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুর ২টা ৩৩ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

প্রায় ৫ বছর ধরে অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়মিত চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। অবশেষে হঠাৎ শরীর বেশি খারাপ হওয়ায় এক সপ্তাহ আগে তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

হুমায়ূন আহমেদের ‘অয়োময়’ নাটক ও ‘আগুনের পরশমণি’ চলচ্চিত্র ছাড়াও অসংখ্য নির্মাণে অনবদ্যভাবে পর্দায় আসা এই শিল্পীর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নিজের তহবিল থেকে দিয়েছেন ২৫ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র। গতকাল (১১ জানুয়ারি) সালেহ আহমেদের স্ত্রী ও সন্তানের হাতে এটি তুলে দিয়েছিলেন।

১৯৯১ সালে অবসরে যাওয়ার পর হুমায়ূন আহমেদের নাটকে ও চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। ধারাবাহিক ‘অয়োময়’ নাটক এবং ‘আগুনের পরশমণি’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয় জগতে তার দাপুটে পদচারণা শুরু হয়। এরপর অসংখ্য টিভি নাটক এবং চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন স্বাধীনতা পদক।

সালেহ আহমেদের জন্ম বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরে চাকরির পাশাপাশি ময়মনসিংহে অমরাবতী নাটমঞ্চের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এই অভিনেতা। স্বাধীনতার আগে বিটিভিতে তিনি নিয়মিত অভিনয় করতেন।

এই গুণী শিল্পীর বিদায়ে শোকাহত শিল্পী পরিবার। অনেকে বলছেন এই শিল্পীর অপূর্ণতা পূরণ হবার না।

বিডি২৪লাইভ/এএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: